Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:২৬

বরিশালের নাগরিকদের ১৭ ধরনের তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশালের নাগরিকদের ১৭ ধরনের তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ

মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে বরিশালের নাগরিকদের ১৭ ধরনের তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ। নগরীর সকল বাড়িওয়ালা, ভাড়াটিয়া কিংবা মেসের বাসিন্দা সবাই একটি তথ্য ফরমের মাধ্যমে পুলিশের ডাটাবেজে সংযুক্ত থাকবে। সেখানে তাদের ছবি এবং প্রয়োজনীয় ১৭ ধরনের তথ্য থাকবে। 

যে সকল অপরাধীরা পুলিশ এবং বাড়িওয়ালাসহ সকল শান্তিপ্রিয় মানুষের অজান্তে কিংবা পরিচয় গোপন রেখে বাসা ভাড়া নিয়ে কিংবা মেসে থাকেন তাদেরকে চিহ্নিত করার মাধ্যমে পুলিশ তাদের ধরতে পারবে। অপরাধ নিয়ন্ত্রণ এবং প্রতিরোধে এই তথ্য ভান্ডার অনেক কাজে আসবে বলে প্রত্যাশা পুলিশের।  

মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেন, পুলিশের সদস্যরা প্রতিটি বাড়ি বাড়ি যাবেন তথ্য সংগ্রহ ফরম নিয়ে এবং তারা ফরম পূরণ করে নিয়ে আসবেন। এর মাধ্যমে জনগনের সাথে পুলিশের একটি যোগাযোগ স্থাপন হবে। তথ্য ভান্ডার থাকলে অপরাধীরা এই শহরে থাকতে পারবে না, তারা শহরে জায়গা পাবে না। তারা পালিয়ে থেকেও কোন অপরাধ করতে পারবে না এবং অপরাধ নিবারন এই তথ্য ভান্ডার পুলিশের কাজে সহায়তা করবে। তবে সাধারণ জনগন চাইলেও এই ডাটাবেজ ব্যবহার করতে পারবে না বলে পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন। একটি অভিযানের মাধ্যমে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম সম্পন্ন করার কথা বলেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান। 

নাগরিক তথ্য ফরমে বাংলা ও ইংরেজীতে বাড়িওয়ালা কিংবা ভাড়াটিয়ার নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্ম তারিখ, বৈবাহিক অবস্থা, স্থায়ী ঠিকানা, পেশা ও কর্মস্থল, ধর্ম-গোত্র, শিক্ষাগত যোগ্যতা, মুঠোফোন নম্বর, ই-মেইল আইডি, ফেসবুক আইডি, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, জন্মসনদ নম্বর, পাসপোর্ট নম্বর, ড্রাইভিং লাইসেন্স নম্বর, জরুরী যোগাযোগের জন্য নির্ভরযোগ্য কিংবা নিকটাত্মিয়দের তথ্য, পরিবারের সদস্যদের বিবরন, এক বা একাধিক গৃহকর্মী, ড্রাইভার, নিরাপত্তা কর্মীর নামসহ বিস্তারিত তথ্য, ভাড়াটিয়াদের ক্ষেত্রে পূর্ববর্তী বাড়িওয়ালা নামসহ বিস্তারিত, পূর্ববর্তী বাসা ছাড়ার কারণ, বর্তমান বাড়িওয়ালার নাম এবং বর্তমান বাড়িতে কোন তারিখ থেকে বসবাস শুরু করেছে তার বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়েছে। 

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার চত্ত্বরে বেলুন-ফেস্টুন উড়িয়ে তথ্য সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান। উদ্বোধনের পর সেখান থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী শুরু হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে অশ্বিনী কুমার হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়। 

পরে অশ্বিনী কুমার হলে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভায় পুলিশ কমিশনার ছাড়াও অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার প্রলয় চিসিম, উপ-কমিশনার আবু রায়হান মো. সালেহ, মোক্তার হোসেন, জাহাঙ্গীর মল্লিক, খায়রুল হাসান, সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র আয়শা তৌহিদ লুনা সহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন। জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মী সহ অন্যান্যদের অংশগ্রহনে সভায় নাগরিক তথ্য সংগ্রহে সবার সহযোগীতা কামনা করেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।


বিডি প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য