শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ১৩:০৯
আপডেট : ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ১৩:১১

তুরাগে নকল ঔষধ কারখানায় অভিযান, মালিকসহ ৩ জনের কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

তুরাগে নকল ঔষধ কারখানায় অভিযান, মালিকসহ ৩ জনের কারাদণ্ড

রাজধানীর তুরাগ কামারপাড়া এলাকায় ঔষধ তৈরির একটি কারখানায় অভিযান চালিয়েছে র‍্যাব-৪। এসময় নকল ইউনানী ঔষধ তৈরির অভিযোগে ওই কারখানার মালিকসহ ৩ জনকে কারাদণ্ড দিয়েছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানী তুরাগের বামনারটেক এলাকায় নকল ইউনানি ঔষধ তৈরির ওই কারখানাটির সন্ধান পাওয়ার পর সেখানে অভিযান চালানো হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তারুজ্জামান।

র‍্যাব জানায়, রাজধানীর তুরাগ থানাধীন কামারপাড়া এলাকায় 'ন্যাচারাল রিসার্চ ল্যাবরেটরি' নামে নকল ইউনানি ঔষধ তৈরির কারখানায় মানহীন এবং নোংরা পরিবেশে অননুমোদিতভাবে এবং ঔষধ প্রশাসনের লাইসেন্স ব্যতীত বিভিন্ন প্রকার ইউনানী ঔষধ উৎপাদন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও বিক্রয়ের অভিযোগে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তারুজ্জামানের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। 

অভিযানে প্রমাণিত হয়, কারখানাটির ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন থেকে কোনো ধরনের অনুমোদন নেই। প্রতিষ্ঠানটিতে নেই কোনো মাননিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। একটি ঔষধ তৈরির কারখানায় যে ধরনের মান ও পরিবেশ থাকা দরকার, তার কোনো বালাই এখানে নেই। এমনকি, প্রতিষ্ঠানটি প্রয়োজনী কাগজপত্রের ক্ষেত্রেও জালিয়াতি করেছে তারা।

এতে উক্ত কারখানার মালিক এস এম গোলাম সাক্লাইন (৩৮)-কে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং পর্যায়ক্রমিকভাবে কারখানার দুই ম্যানেজার অমিওময় নন্দি (৫২)-কে ৩ মাস ও আজিজুল হাকিম (৫০)-কে ১ মাসের কারাদণ্ডসহ কারখানাটিকে সিলগালা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে উক্ত প্রতিষ্ঠান হতে বিভিন্ন প্রকার লাইসেন্সবিহীন অবৈধ ইউনানি ঔষধ জব্দ শেষে ধ্বংস করা হয়। জব্দকৃত মালামালের সর্বমোট আনুমানিক মূল্য ১৫ লক্ষ টাকা। ভবিষ্যতে জনস্বাস্থ্যের সুরক্ষার্থে এ ধরনের অনুমোদনহীন নকল ঔষধ প্রতিরোধে সাড়াঁশি অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায় র‍্যাব।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর