Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ মার্চ, ২০১৯ ০২:২০

বদলে যাচ্ছে হজ ব্যবস্থাপনা

সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন হবে ঢাকায়, আজ ধর্ম মন্ত্রণালয়ে সভা

মোস্তফা কাজল

বদলে যাচ্ছে হজ ব্যবস্থাপনা

বদলে যাচ্ছে হজ ব্যবস্থাপনা। চলতি বছর বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সৌদি আরবের বিমানবন্দরের পরিবর্তে ঢাকায় হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করার ব্যবস্থা নিচ্ছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

আজ সচিবালয়ে এ বিষয়ে সৌদি আরবের ধর্ম মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। এতে ইমিগ্রেশনের জন্য অন্যান্য বছরের মতো হজযাত্রীদের সৌদি বিমানবন্দরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে না। ২০১৭ সাল থেকে মালয়েশিয়া এবং ২০১৮ সাল থেকে ইন্দোনেশিয়ার হজযাত্রীরা আগাম ইমিগ্রেশনের সুবিধা পাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ হবে এমন সুবিধাপ্রাপ্ত তৃতীয় দেশ।

জানা গেছে, এ ব্যবস্থা চালু হলে শাহজালাল বিমানবন্দরে হজক্যাম্পে ডিপারচার ইমিগ্রেশনের সঙ্গেই সৌদির কর্মকর্তারা আগাম ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করবেন। এতে সৌদি আরবে হজযাত্রীরা উড়োজাহাজ থেকে নেমে সরাসরি হজ টার্মিনালে প্রবেশ করতে পারবেন। প্রসঙ্গত, চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরব যাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার জন পবিত্র হজ পালন করবেন। ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, কয়েক দিন আগে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুলাহর নেতৃত্বে বাংলাদেশের একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল সৌদি সরকারের আমন্ত্রণে দেশটি সফর করে। সফরকালে সৌদি ইমিগ্রেশনের পরিবর্তে বাংলাদেশের বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনের ব্যবস্থা করতে সংশিষ্টদের অনুরোধ জানানো হয়। ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর ওই অনুরোধে সাড়া দিয়েছে সৌদি সরকার। এ লক্ষ্যে সৌদি সরকারের একটি কারিগরি দল গতকাল ঢাকায় এসেছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, সৌদি আরবের কারিগরি প্রতিনিধিদলটি আজ পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন এবং বিমানবন্দর ও হজ অফিস পরিদর্শন করবেন। তারা বাংলাদেশ থেকে হজযাত্রীদের সৌদি আরবে প্রবেশের মিশন সম্পন্ন করা যায় কিনা তা পরীক্ষা করে দেখবেন। উল্লেখ্য, গত বছর পর্যন্ত হজ পালনে জেদ্দা বিমানবন্দরে নেমে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো। পাঁচ-ছয় ঘণ্টা উড়োজাহাজ ভ্রমণে ক্লান্ত হজযাত্রীরা ইমিগ্রেশনের জন্যও কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা করে অসুস্থ হয়ে পড়তেন।

 তবে হজ মন্ত্রণালয়ের এ পদক্ষেপ কার্যকর হলে অপেক্ষার ভোগান্তি আর থাকবে না। জানতে চাইলে হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসেন তসলিম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সৌদি সরকারের হজবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব শিগগিরই বাংলাদেশ সফরে আসছেন। আমরা আশা করছি চলতি বছর থেকে সৌদি বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশনের বদলে রাজধানী ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।’


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর