Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:৫১

শপথ নিলেন নব নিযুক্ত ৯ অতিরিক্ত বিচারপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

শপথ নিলেন নব নিযুক্ত ৯ অতিরিক্ত বিচারপতি
নবনিযুক্ত ৯ অতিরিক্ত বিচারপতিকে গতকাল শপথবাক্য পাঠ করান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন -বাংলাদেশ প্রতিদিন

শপথ নিয়েছেন হাই কোর্ট বিভাগের নবনিযুক্ত ৯ অতিরিক্ত বিচারপতি। গতকাল সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে তাদের শপথবাক্য পাঠ করান প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন হাই কোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানী। উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাই কোর্ট বিভাগের বিচারপতি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। নবনিযুক্ত এই ৯ অতিরিক্ত বিচারপতি হলেনÑ বিচারপতি মুহম্মদ মাহবুব-উল ইসলাম,            বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিন, বিচারপতি ড. মো. জাকির হোসেন, বিচারপতি ড. মো. আখতারুজ্জামান, বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদার, বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেন, বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার, বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক এবং বিচারপতি কাজী জিনাত হক। এর আগে গত রবিবার এই নয়জনকে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি। ওই দিনই এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এদিকে নতুন বিচারপতিদের শপথের পর তাদের সংবর্ধনা দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা। অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের সঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিও সংবর্ধনা দেয়। আইনজীবী সমিতির সভাপতি (সুপ্রিম কোর্ট বার) ও সাধারণ সম্পাদক একসঙ্গে সাত বিচারপতিকে সংবর্ধনা দিলেও বাকি দুজনকে সংবর্ধনা দেননি বিএনপি নেতা ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন। পরে পৃথক সংবাদ সম্মেলনও করেছেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন ও সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন।

সংবাদ সম্মেলনে এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, একজন বিচারককে বিচার করা হয় তার জীবনের অনেকগুলো রায়ের মাধ্যমে। উনি যদি আমার বিরুদ্ধে রায় দেন তাহলে উনি খারাপ বিচারক হয়ে গেলেনÑ এ ধরনের মনোভাব থাকা উচিত নয়। তিনি বলেন, বিচারক যখন রায় দেবেন তার বিরুদ্ধে উচ্চতর আদালত আছে, সেই আদালতে যাবেন। বিচারক রায় দিলে তার বিরুদ্ধে কথা বলা আইনজীবী হিসেবে কোনোভাবেই কাম্য নয়। এর আগে সংবাদ সম্মেলনে মাহবুব উদ্দিন খোকন হতাশা প্রকাশ করে বলেন, সরকার ৯ জন বিচারপতি নিয়োগ দিয়েছেন। তাদের অনেকের নাম তালিকায় দেখে আমরা হতাশ, জাতি হতাশ।

দুঃখজনক হলেও সত্য, আজ বিচারপতিদের তালিকায় দুজন বিচারপতির নাম দেখা যাচ্ছে, যারা দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়েছেন। আরেকজন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে সাজা দিয়েছেন। মনে হয় তাদের পুরস্কৃত করতে সরকারের পক্ষ থেকে সুপারিশের ভিত্তিতে বিচারক নিয়োগ করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর