শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০২০ ২১:৪৭

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন

কাউন্সিলরদের ভোটের ‘ফ্যাক্টর’ ছোট দল

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম

কাউন্সিলরদের ভোটের ‘ফ্যাক্টর’ ছোট দল

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) নির্বাচনে ভোটের মাঠে বড় দুই দলের কাউন্সিলর প্রার্থীদের ভোটের ‘ফ্যাক্টর’ হিসেবে রয়েছে ছোট রাজনৈতিক দলগুলো। ভোটের জয়-পরাজয়সহ নানা বিষয়ে টেনশনে রয়েছেন বড় দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থীরা। তবুও দুই দলের কাউন্সিলর প্রার্থীদের পাশাপাশি দলীয় নেতা-কর্মীরা প্রতিটি ওয়ার্ড-পাড়া-মহল্লায় মেয়র পদে নৌকা-ধানের শীষের মতো কাউন্সিলর প্রার্থীদের জন্যও ভোট চেয়ে চষে বেড়াচ্ছেন। নির্ঘুম প্রচারণায় থেমে নেই ছোট দলগুলোর মেয়র প্রার্থীদের নেতা-কর্মীরাও। মেয়র পদে ছোট ৪ রাজনৈতিক দলের নিজস্ব প্রার্থী থাকলেও কাউন্সিলর পদে কোনো প্রার্থী না থাকায়, তাদের ভোটার বা সমর্থকদের কাছে টানতে নানা কৌশলে কাজ করছেন কাউন্সিলর প্রার্থী ও দলীয় নেতা-কর্মীরা। দলীয় ও নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দুই শীর্ষ রাজনৈতিক দলের সঙ্গে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে চারটি ছোট রাজনৈতিক দল- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি)। এসব দলের মেয়র প্রার্থী থাকলেও নেই নগরীর ১৪টি সংরক্ষিত এবং ৪১টি সাধারণ ওয়ার্ডে কোনো কাউন্সিলর প্রার্থী। এ দলগুলো থেকে শুধু মেয়র পদে নির্বাচন করা নিয়ে তৃণমূলের নেতাদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝেও নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। সাবেক কাউন্সিলর ও সংগঠক জামাল হোসেন বলেন, বড় দুই দলের মধ্যে ভোটের ব্যবধান থাকবে কাছাকাছি। বড় দলগুলোর মতো ছোট দলগুলোরও নিজস্ব ভোট ব্যাংক রয়েছে। কাউন্সিলর পদে এসব ভোটেও হবে নানা কলা-কৌশল-কারিশমা। মেয়র পদে বড় দুই দলের মতো ছোট দলগুলোর কাউন্সিলর প্রার্থী নেই। এ অবস্থায় ছোট রাজনৈতিক দলগুলোর দিকে ঝুঁকছে পুরুষ ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

তবে এখানে যোগ্য ও ত্যাগী কাউন্সিলর প্রার্থীদের মূল্যায়নের পাশাপাশি কিছু কিছু বিষয়ে টাকার খেলাও চলতে পারে বলে জানান তিনি। একই কথা বললেন একাধিক সাধারণ ভোটাররা।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর