শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০

বিবাদ ভুলে অভিন্ন সুরে প্রচারণা প্রার্থীদের

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

বিবাদ ভুলে অভিন্ন সুরে প্রচারণা প্রার্থীদের

নির্বাচন মানেই প্রতিপক্ষকে ঘায়েল। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর দোষ ও ভুলত্রুটি সাধারণ ভোটারদের কাছে উপস্থাপন করে নিজের পক্ষে সমর্থন আদায়ের প্রচেষ্টা। কিন্তু করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের স্থগিত হওয়া নির্বাচনে ভিন্ন রকম প্রচারণা প্রত্যক্ষ করছে নগরবাসী। এ যেন সৌহার্দপূর্ণ নির্বাচনের অনন্য নিদর্শন। এ প্রচারণায় নেই কোনো রেষারেষি কিংবা হানাহানি। দল-মত নির্বিশেষে সব মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর অভিন্ন সুর। সবাই একযোগে মাঠে নেমেছেন করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতা তৈরিতে।  আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এখন করোনাভাইরাসের বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে কাজ করছি। দলের নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছি  জনগণকে করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে কাজ করার।

এরই মধ্যে প্রত্যেক ওয়ার্ডে তারা কাজ শুরু করেছে।

বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ নেই। দলের সব নেতা-কর্মীকে নির্দেশ দিয়েছি এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে মাঠে থাকতে। একই সঙ্গে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বাকি মেয়র প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. জান্নাতুল ইসলাম, বাংলাদেশি ইসলামী ফ্রন্টের এম এ মতিন, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের মুহাম্মদ ওয়াহেদ মুরাদ এবং ন্যাশনাল পিপল পার্টির আবুল মনজুর মাঠে সক্রিয় রয়েছেন করোনা প্রতিরোধে লোকজনকে সচেতনতা তৈরিতে।

এ ছাড়া প্রচার-প্রচারণা স্থগিত করে করোনা প্রতিরোধযুদ্ধে শামিল হয়েছেন দুই শতাধিক কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী। তারা করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা তৈরিতে লিফলেট ও ডিজিটাল প্রচারণার পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছেন জনগণের মধ্যে। আবার কেউ কেউ চাল-ডাল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যও বিতরণ করছেন লোকজনের কাছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর