শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৭ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ মে, ২০২১ ০১:৩৩

লকডাউনে চাঙা শেয়ারবাজার

আলী রিয়াজ

লকডাউনে চাঙা শেয়ারবাজার
Google News

আতঙ্ক কাটিয়ে লকডাউনের মধ্যে চাঙা রয়েছে দেশের শেয়ারবাজার। প্রতিদিনের লেনদেনে তুলনামূলক বাজার সূচক বেড়েছে। বিনিয়োগকারীদের আস্থাহীনতা কাটিয়ে বাজার স্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। গত মার্চের শুরুতে বাজারে যে অস্থিরতা দেখা গিয়েছিল, কভিড নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর দেখা গেছে উল্টো

চিত্র। চলতি সপ্তাহেও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) পাঁচদিনের লেনদেনে ১২৭ পয়েন্ট বেড়েছে। গত চার সপ্তাহে দেখা গেছে গড় লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৭০০ থেকে ৮০০ কোটি টাকা। যা আগের কয়েক মাসের তুলনায় বেশি।

জানা গেছে, করোনার প্রকোপ বৃদ্ধির কারণে সরকার চলাচল নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা করতে পারে এমন শঙ্কায় শেয়ারবাজারে বড় ধরনের দরপতন ঘটে। নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর বাজার তুলনামূলক ঘুরে দাঁড়ায়। গত চার সপ্তাহের বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএইতে সূচক বেড়েছে প্রায় ৬০০ পয়েন্ট। গত ৪ এপ্রিল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্সের অবস্থান ছিল ৫ হাজার ৮৮ পয়েন্ট। যা গতকাল পর্যন্ত হয়েছে ৫ হাজার ৬০৬ পয়েন্ট। অর্থাৎ এই সময় সূচক বেড়েছে এবার ৬০০ পয়েন্ট। লেনদেন হারও দেখা গেছে মার্চ মাসে ছিল ৪০০ কোটি টাকার নিচে। যা গত কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে হয়েছে ৮০০ কোটি টাকার বেশি। ডিএসইতে এই সময় একদিনে লেনদেন ১৪০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। যা গত তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। বাজার মূলধন এই এক মাসে বেড়েছে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা। এপ্রিলের শুরুতে ডিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৪ লাখ ৫৮  হাজার কোটি টাকা। যা সর্বশেষ হয়েছে ৪ লাখ ৭৭ হাজার কোটি টাকার কিছু বেশি।

ডিএসইর সর্বশেষ গতকালের লেনদেনে দেখা গেছে, ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৭ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৬০৬ পয়েন্টে উঠে এসেছে। বাজারটিতে দাম বেড়েছে ১৮০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। দাম কমেছে ১২০টির এবং ৬০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।  দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৪৮৬  কোটি ২৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় এক হাজার ৩৯৮ কোটি ৫১ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটির ১০৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়ন ফার্মার ৫৪ কোটি ২৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ৪৫ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো ফার্মা।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ৬৩ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৫৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৮৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬৫টির দাম বেড়েছে। দাম কমেছে ৮৪টির এবং ৩৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর