শিরোনাম
বুধবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২৩ ০০:০০ টা
রংপুর চিড়িয়াখানা

শীতে কাহিল ২৫৪ প্রাণী

নজরুল মৃধা, রংপুর

শীতে কাহিল ২৫৪ প্রাণী

রংপুরে চলতি শীত মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে প্রবাহিত হচ্ছে। প্রচন্ড শীত ও কুয়াশায় মানুষের মতোই কাবু হয়ে পড়ছে রংপুর চিড়িয়াখানার ৩২ প্রজাতির ২৫৪টি প্রাণী। তবে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বলছে, শীতকাতর প্রাণীগুলোর বিশেষ যত্ন নেওয়া হচ্ছে। গতকাল দুপুরে চিড়িয়াখানায় গিয়ে শীতে মানুষের মতোই কাহিল হতে দেখা গেছে প্রাণীদের। শীতের তান্ডবে প্রাণীগুলো এক প্রকার নিস্তেজ হয়ে পড়েছে। প্রতিটি খাঁচার ভিতরে পশুপাখি গুটিসুটি মেরে বসে আছে। খাঁচার ভিতরে দেখা গেছে শীতে কাতর সিংহ-সিংহীকে। অন্যদিকে বানরসহ অন্যান্য প্রাণী খাঁচার কোনায় গুটিসুটি মেরে বসে থাকতে দেখা গেছে। হরিণ, ঘোড়া, ময়ূর, বাঘ, সিংহ, বানরসহ সব পশুপাখি গুটিয়ে বসে আছে। চিড়িয়াখানাসূত্রে জানা গেছে, রংপুর চিড়িয়াখানায় ৩২ প্রজাতির প্রায় ২২৪ পশুপাখি রয়েছে। সেগুলো হলো- সিংহ, জলহস্তী তিনটি, ময়ূর আটটি, হরিণ ৫৯টি, অজগর দুটি, ইমু তিনটি, উটপাখি একটি, বানর নয়টি, কেশওয়ারি একটি, গাধা তিনটি, ঘোড়া দুটি, ভল্লুক একটি ও বিভিন্ন প্রজাতির পাখি উল্লেখযোগ্য। দেশে দুটি সরকারি চিড়িয়াখানার মধ্যে রংপুর একটি। চিড়িয়াখানার কিউরেটর ডা. আম্বর আলী তালুকদার জানান, শীতে প্রাণীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সব সময়ের জন্য চিকিৎসাসেবা, অসুস্থ হলে প্রয়োজনীয় ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। যেসব প্রাণী শীত একেবারেই সহ্য করতে পারে না, তাদের প্রতিটি খাঁচার চারদিকে চট দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া বিশেষ ব্যবস্থায় খড় দেওয়া হয়েছে যাতে প্রাণীর শরীর গরম থাকে।

 

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর