শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ এপ্রিল, ২০২০ ১৩:৩২
আপডেট : ৫ এপ্রিল, ২০২০ ১৩:৫০

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৮৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

শরীয়তপুরপ্রতিনিধি

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৮৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

শরীয়তপুরে করোনা প্রতিরোধে সদর উপজেলায় ৪টি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে। পরিবারের ৭ ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। 

অন্যদিকে, নড়িয়া উপজেলা ঘরিষার ইউনিয়নের থিরপাড়া গ্রামের ৩৩ পরিবারকে লকডাউন করে ১৮০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ পরিবারকে লকডাউন করে ১৮৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শরীয়তপুর  জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, শনিবার সদর হাসপাতালে জ্বর ও মাথাব্যথা নিয়ে ভর্তি হওয়া এক নারীর মৃত্যু হয়। মৃত ওই নারীর বাড়ি শরীয়তপুর সদর উপজেলার চন্দ্রপুর ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামে। নিহত ব্যক্তির দেহে করোনাভাইরাস নিশ্চিত হতে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। ওই নারীর সংস্পর্শে আশা চারটি বাড়িকে লকডাউন করা হয়েছে। 

অন্যদিকে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে (আইইডিসিআর) এর তত্ত্বাবধানে এক ব্যক্তি চিকিৎসাধিন অবস্থায় শনিবার ঢাকায় নিহত হয়েছেন। তার গ্রামের বাড়ি নড়িয়া উপজেলার ঘড়িসার ইউনিয়নের থিরপাড়া গ্রামে। তাই ওই গ্রামের ৩৩টি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ১৮৭জনকে।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য