শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:২৫

বিনা বেতনে পাঠদান ২৩ বছর

লালমাই (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

বিনা বেতনে পাঠদান ২৩ বছর

এক দুই বছর নয়, টানা ২৩ বছর ধরে বিনা বেতনে পাঠদান করাচ্ছেন কুমিল্লার লালমাই উপজেলার জামিরা মহিলা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষকরা। প্রায় দুই যুগেও এমপিওভুক্তি না হওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন মাদ্রাসার সুপারসহ ১২জন শিক্ষক ও ৩জন কর্মচারী।

নারীদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে ১৯৯৮ সালে উপজেলার ভুলইন দক্ষিণ ইউনিয়নের জামিরা গ্রামে এক একর জমির উপর মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আলহাজ আবদুল খালেক মজুমদার। ২০০৪ সালে মাদ্রাসাটি দাখিল পর্যন্ত পাঠদানের অনুমতি পায়। মাদ্রাসা বোর্ড স্বীকৃতি দেয় ২০০৭ সালে। বর্তমানে মাদ্রাসায় ৪৫০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। ২০১৯ সালে এবতেদায়ী ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফলে মাদ্রাসাটি উপজেলার শীর্ষ স্থান অর্জন করেছে। জেডিসি পরীক্ষায় ৩৮ জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করে সবাই কৃতকার্য হয়েছে। এদের মধ্যে ২ জন জিপিএ-৫ এবং ২০ জন জিপিএ-৪ পেয়েছে। এবতেদায়ী পরীক্ষায় ৩৪ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে সবাই কৃতকার্য হয়েছে। ২০২০ সালে মাদ্রাসাটি থেকে ২২ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মো. খলিলুর রহমান মজুমদার বলেন আর্থিক সংকটে আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি।

মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির বিদ্যোৎসাহী সদস্য ও কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী বলেন, নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে মাদ্রাসাটি এমপিওভুক্তি করা দরকার।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর