রবিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ টা

যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে ময়লা, নেই ডাস্টবিন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে ময়লা, নেই ডাস্টবিন

নারায়ণগঞ্জে যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে ময়লা আবর্জনা। অহরহ পরিবেশ দূষণ চলছে। দেখার কেউ নেই। শহর ও শহরতলীতে নির্দিষ্ট ডাস্টবিন না থাকার কারণেই যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে বলে অভিযোগ সচেতন মহলের। ময়লা-আবর্জনার কারণে পথচারী তো দূরের কথা সড়কে যাতায়াতকারী বিভিন্ন পরিবহনের যাত্রীদেরও নাক  চেপে থাকতে হয়। নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া  রেললাইন, নবাব সলিমুল্লাহ সড়ক, বঙ্গবন্ধু সড়কসহ শহরের অলিগলি সবখানেই ময়লা-আবর্জনার স্তূপ। একই অবস্থা শিবু মার্কেট, লামাপাড়া, জালকুড়ি, শিমরাইল মোড়সহ বিভিন্ন এলাকাতেই সড়কের পাশে ফেলা হচ্ছে ময়লা আবর্জনা।  স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, নারায়ণগঞ্জ  যেন এক আবর্জনার শহরে পরিণত হচ্ছে। দিনে দিনে ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ের সংখ্যা ববৃদ্ধি পাচ্ছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে নাসিক অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করলেও তার অনেকটাই ম্লান হয়ে পড়ছে ময়লা-আবর্জনার কাছে। অভিযোগ রয়েছে, নির্দিষ্ট কিছু জায়গা ছাড়া অনেক এলাকায়ই পৌঁছায় না সিটি করপোরেশনের বর্জ্য অপসারণের সুবিধা। তেমনই একটি এলাকা দেওভোগ ভূঁইয়ারবাগ-সংলগ্ন বোয়ালী খাল এলাকাটি। স্থানীয়দের অভিমত, মাঝেমধ্যে দুই-একবার সিটি করপোরেশনের বর্জ্য অপসারণের গাড়ি আসে। বেশির ভাগ সময়ই এলাকাবাসীকে এই ময়লা ও দুর্গন্ধকে সঙ্গী করেই জীবনযাপন করতে হয়।  লিংক রোডের দুই পাশে ময়লা-আবজর্নার কারণে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে লিংক রোড দিয়ে যাতায়াতকারী যাত্রীদেরও দুর্গন্ধের কারণে নাকে রুমাল চেপে চলাচল করতে হয়। একই অবস্থা সাইনবোর্ড ও শিমরাইল মোড় এলাকাতেও।  ঢাকার একটি বেসরকারী অফিসের কর্মকর্তা কাজী মাহফুজুর রহমান জানান, ময়লা আবজর্নার দুর্গন্ধে লিংক রোড দিয়ে চলাফেরা কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। মনে হচ্ছে পুরো লিংক রোডটি ময়লার ভাগাড়। একই অবস্থা শহর ও শহরতলীতে। নির্দিষ্ট ডাস্টবিন না থাকায় সাধারণ মানুষ যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা ফেলছে।

সর্বশেষ খবর