Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৪২
আপডেট : ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৪৩

মাগুরা সদর হাসপাতালে পানি নেই ২০ দিন!

নিজস্ব প্রতিবেদক

মাগুরা সদর হাসপাতালে পানি নেই ২০ দিন!

মাগুরা সদর হাসপাতালে ২০দিন ধরে পানি সরবরাহ বন্ধ থাকায় রোগীদের জন্য ২৭টি পায়খানা ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। রোগীদের জরুরি কাজ সারতে বাইরে থেকে পানি এনে ব্যবহার করতে হচ্ছে। এর ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন রোগী ও স্বজনরা।

হাসপাতালে ভর্তি আব্দুল মজিদসহ একাধিক রোগী ও তাদের স্বজনরা জানান, প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে হাসপাতালের পায়খানা ও গোসল খানায় পানি নেই। পানির অভাবে বাইরে গিয়ে প্রয়োজনীয় কাজ সারতে হচ্ছে রোগী ও স্বজনদের। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বাথরুমের প্যান ভরে উপচে পড়ছে মলমূত্র। অসুস্থ্য রোগীরা প্রকৃতির কাজ সারছেন বাথরুমের বাইরেই। ফলে দুর্গন্ধে হাসপাতালের পরিবেশ মারাত্মক ভাবে দুষিত হয়ে পড়ছে। এ অবস্থায় অনেক রোগী চিকিৎসা না নিয়েই চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। এ পরিবেশে নিরুপায় হয়ে যারা আছেন তাদের অনেকেই অসুস্থ  হয়ে পড়ছেন। সেই সঙ্গে বাথরুমের বৈদ্যুতিক বাল্ব না থাকায় অন্ধকারে রোগীরা সমস্যায় পড়ছে।

হাসপাতালের ঝাড়ুদার রিজিয়া বেগম জানান, বাথরুমে পানি না থাকায় সবগুলো বাথরুমই বন্ধ হবার উপক্রম হয়েছে। পানির অভাবে বাথরুম পরিষ্কার করা যাচ্ছে না। গত ২০ দিন ধরে এই অবস্থা চলছে। আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি। 

মাগুরার সিভিল সার্জন ও হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক মুন্সী মোহাম্মদ ছাদুল্লাহ বলেন, ‘আমি সদ্য তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্ব পেয়েছি। দায়িত্ব পেয়ে সবাইকে ডেকে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছি। খুব শিগগিরই পানি সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে বলে আশা করছি। হাসপাতালের ভেতরের ড্রেন থেকে পানি নিষ্কাশনের সমস্যা থাকায় সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। এখানেও কাজ চলছে। কাজটি সম্পন্ন হলে সমস্যা থাকবে না। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য