শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:৫৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিক্ষার্থীকে বলৎকারের চেষ্টা, মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিক্ষার্থীকে বলৎকারের চেষ্টা, মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১০ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থীকে বলৎকারের চেষ্টার অভিযোগে মুফতি সালমান (২৪) নামে এক মাদরাসার শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার বেলা ১১টায় সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের আনোয়ারুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত মুফতি সালমান সিলেট জেলার গোয়ানঘাট উপজেলার পাইকরাজ গ্রামের সামসুল হকের ছেলে ও আনোয়ারুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। শিশুটির অভিভাবক ও পুলিশ জানায়, জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের ওই শিশু শিক্ষার্থীকে প্রায়ই কু-প্রস্তাব দিতো মাদ্রাসার শিক্ষক মুফতি সালমান। গত শুক্রবার রাতে মাদরাসার শিক্ষার্থীরা ঘুমিয়ে পড়লে মুফতি সালমান ঘুমন্ত শিশুটিকে বলৎকারের চেষ্টা করে। শনিবার সকালে শিশু শিক্ষার্থী বিষয়টি মাদ্রাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জানালে তোলপাড় শুরু হয়। মুফতি সালমান বিষয়টি জানতে পেরে শিশুটিকে একটি কক্ষে আটকে রাখে। পরে সে কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে বাড়ি চলে এসে ঘটনাটি তার বাবা-মাকে অবহিত করে। শিশুর পিতা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ মাদরাসায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মুফতি সালমানকে গ্রেফতার করে। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, অভিযুক্ত মুফতি সালমানকে গ্রেফতার করেছি। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।


বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর