২৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ২২:৪২

‘আফজল খান কুমিল্লাবাসীর হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন’

মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা

‘আফজল খান কুমিল্লাবাসীর হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন’

'আফজল খান ছিলেন কুমিল্লার রাজনীতির বাঘ। তার নেতৃত্বে কুমিল্লা নগরী ফ্রিডম পার্টি মুক্ত হয়েছিলো। ৭৫ পরবর্তী সময়ে তিনি আওয়ামী লীগকে কুমিল্লার মাঠে দাঁড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। তিনি রাজনীতির জাদুকর। বক্তব্য দেওয়ার সময় সর্বস্তরের মানুষ ভিড় করতেন। কী বলেন, তা শোনার জন্য মুখিয়ে থাকতেন। কুমিল্লায় তার সময়ে কোনো নেতা এমন জনপ্রিয় ছিলেন না। তিনি কুমিল্লাবাসীর হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।' প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ আফজল খানের নাগরিক শোক সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। 

শুক্রবার বিকালে কুমিল্লা টাউন হল মাঠে এই সভার আয়োজন করা হয়। নাগরিক স্মরণ পর্ষদ কুমিল্লা আয়োজিত সভায় বিভিন্ন দল মতের মানুষের সমাবেশ ঘটে। শ্রদ্ধা ভালোবাসা জানাতে আসা মানুষে ভরে যায় মাঠ। বিকাল ৩টায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠান চলে প্রায় রাত ৮টা পর্যন্ত।

বক্তারা আরো বলেন,আফজল খান একটি নাম, একটি ইতিহাস। ষড়যন্ত্র করে কাউকে নির্বাচন থেকে হারানো যায়, হৃদয় থেকে মুছে ফেলে যায় না। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে কখনো বিচ্যুত হননি।

নাগরিক স্মরণ পর্ষদের আহবায়ক ডা. মোসলেহ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আমির হোসেন আমু,অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ মাহবুবুল আলম হানিফ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি, র আ ম ওবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরী এমপি, জাসদের শিরিন আক্তার এমপি, আওয়ামী লীগের আবুল হাসেম এমপি, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড.সেলিম মাহমুদ,বিএনপি নেতা সাবেক এমপি মনিরুল হক চৌধুরী, বিএমএ কুমিল্লার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. হেদায়েত উল্লাহ,আফজল খানের মেয়ে আঞ্জুম সুলতানা সীমা এমপি,ছেলে চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ওমর ফারুক,ব্যবসায়ী নেতা শাহ মোহাম্মদ আলমগীর খান, বিএমএ কুমিল্লার সাধারণ সম্পাদক ডা.আতাউর রহমান জসিম, আওয়ামী লীগ নেতা সফিকুল ইসলাম সিকদার, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আবদুল মান্নান চৌধুরী, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, বিশিষ্ট গবেষক শান্তিরঞ্জন ভৌমিক, ছড়াকার জহিরুল হক দুলাল, আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেন স্বপন,এম এ করিম মজুদার, পরিবহন নেতা কাজী মোতাহার হোসেন, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শাহিনুল ইসলাম শাহীন, সোনার বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম রেজা সৌরভ, আওয়ামী লীগ নেতা কবিরুল ইসলাম শিকদার ও নূর-উর রহমান মাহমুদ তানিম প্রমুখ। 

উল্লেখ্য, গত ১৬ নভেম্বর ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ রাজনীতিক ৮২ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর