২৭ এপ্রিল, ২০২২ ১৩:১০

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে সাড়া ফেলেছে বাংলাদেশের ছবি ‘আজব কারখানা’

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে সাড়া ফেলেছে বাংলাদেশের ছবি ‘আজব কারখানা’

২৭ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রথম দিনেই ব্যাপক সাড়া ফেলল বাংলাদেশের পরিচালক ড. শবনম ফিরদৌসের ‘আজব কারখানা’। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় নন্দন-২ প্রেক্ষাগৃহে প্রথম শো প্রদর্শিত হয় ১১০ মিনিটের পূর্ণ দৈর্ঘ্যের এই ছবিটির। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শো শুরুর অনেক আগেই দর্শকরা হলে ঢুকতে শুরু করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই হল কানায় কানায় পূর্ণ হয়। অনেককেই দেখা যায়, প্রেক্ষাগৃহের মেঝেতে বসেও সিনেমা দেখছেন।

এদিন সাধারণ দর্শকদের সাথে সিনেমাটি দেখেন ছবিটির পরিচালক ও তার টিমের সদস্যরা, ছবিটির অভিনেতা পরমব্রত চ্যাটার্জি। পরিস্থিতি এমন হয় যে সামনের দরজা দিয়ে ঢুকতে না পেরে শেষমেশ পিছনের দরজা দিয়ে প্রেক্ষাগৃহে ঢুকতে হয় পরমব্রতকে।

সিনেমা প্রদর্শন শেষে অনেক দর্শকই পরিচালকের কাছে জানতে চান এই গল্পের মূল ভিত কি, কার আদলে সিনেমার অভিনেতার মাথায় লম্বা ও ঝাঁকড়া চুল রাখা হয়েছে। 

দর্শকদের কাছ থেকে সাড়া পেয়ে শবনম ফিরদৌস জানান, ‘২০০৫ সালে তিনি প্রথম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে আসেন এবং তখনই এই উৎসবের মান সম্পর্কে সম্যক ধারনা হয়ে যায় তার কাছে। এ নিয়ে তার তৃতীয়বার এই উৎসবে পা রাখা। প্রথম শো-এ ‘আজব কারখানা’ দেখতে যেভাবে দর্শকরা ভিড় জমিয়েছেন তাতে তিনি খুশি ও গর্বিত।’

প্রথম দিনের শোয়ে দর্শকদের সাড়া পাওয়া নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করা পরমব্রত। তিনি বলেন, ‘বাংলার লোকগানের প্রতি চিরকালই আমার একটা আগ্রহ ছিল। কিন্তু এই ছবিটা করতে গিয়ে বিষয়টির অনেক গভীরে ঢুকেছি, পাকাপাকিভাবে বসত গড়েছি এবং অনেক কাছ থেকে বাংলার লোকগান, সঙ্গীতকে চিনেছি।’

তার অভিমত, ‘আমরা যারা সিনেমা করি, তারা জীবনটা অনেকটা যাযাবরদের মতো- কখনও এখানে, তো কখনও ওখানে ঘুরে বেড়ানো। এর একটা সুবিধা অনেক জায়গা, সংস্কৃতির সাথে সম্পর্ক তৈরি হয়, চেনা-জানা হয়। তার মধ্যে কিছু কিছু জায়গার সাথে আবার আত্মিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তার মধ্যে একটি হল বাংলাদেশ। যদিও এই দেশের সাথে আমার ব্যক্তিগত আত্মিক সম্পর্ক গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে খুব বেশি কষ্ট করতে হয়নি। কারণ এটি একটি প্রতিবেশী দেশ, তাছাড়া ঐতিহাসিকভাবেও আমরা সম্পর্কযুক্ত। কাজের সুবাদে বাংলাদেশকে যতটা কাছ থেকে দেখেছি, চিনেছি, তাতে বাংলাদেশকে নিসন্দেহে দ্বিতীয় বাড়ি বলা যেতে পারে। সেটাকে আরও কাছ থেকে চিনেছি এই ছবিতে অভিনয়ের সুবাদে। ...স্বাভাবিকভাবে এরকম একটা গল্প ভাবার জন্য পরিচালককে আমি ধন্যবাদ জানাব।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলা সিনেমার ব্যবসার জন্য অখণ্ড বাংলা বিরাট বড় মার্কেট। কিন্তু তা সত্ত্বেও বাংলা সিনেমা এই বাজার ধরতে পারছে না, তার কারণ দুই দেশের কূটনৈতিক জটিলতা। সব শিল্পীরই এই একটা কষ্ট।’ তার আশা, আগামী ২ বছরের মধ্যে এই সমস্যার সমাধান হবে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ‘আজব কারখানা’ ছবিটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে কাজ করেছেন পরমব্রত। পরমব্রত ছাড়াও অভিনয় করেছেন দিলরুবা দোয়েল, শাবনাজ সাদিয়া ইমি, খালিদ হাসান রুমি, হেলিম বয়াতী, দিলু বয়াতী, কিতাব আলী প্রমুখ। এই চলচ্চিত্রের কাহিনী আবর্তিত হয়েছে একজন রকস্টারের জীবনকে ঘিরে।

গত সোমবার আনুষ্ঠানিক সূচনা হয় কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের। উৎসব চলবে আগামী ১ মে পর্যন্ত। এবারের উৎসবের ফোকাস কান্ট্রি ফিনল্যান্ড। বিশ্বের ৪০টি দেশের মোট ১৬৩টি ছবি দেখানো হবে এই উৎসবে।

এবারের এই উৎসবের ‘এশিয়ান সিলেক্ট: নেটপ্যাক অ্যাওয়ার্ড’ বিভাগে  প্রদর্শনের জন্য মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশের ‘আজব কারখানা’। উৎসবের চতুর্থ দিন আগামী ২৮ এপ্রিল নজরুল তীর্থ-১’এ এই ছবিটির দ্বিতীয় প্রদর্শনী হবে।

এদিকে, এই চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের মাত্র একটি ছবির জায়গা পাওয়া নিয়ে চলচ্চিত্র উৎসব কমিটির চেয়ারম্যান ও পরিচালক রাজ চক্রবর্তী জানান, ‘সংখ্যার বিচারে নয়, গুণগত মান বিচার করেই কমিটি ও জুরি সিনেমা নির্বাচন করে। এখানে সংখ্যা কোনো বিচার্য বিষয় নয়। বাংলাদেশে খুব ভাল ভাল সিনেমা তৈরি হয়। প্রতিবারই কোন না কোন সিনেমা আসে।’

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর