শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:১২

বাংলাদেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় বিজেপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় বিজেপি

ভারতে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সাধারণ সম্পাদক (জেনারেল সেক্রেটারি) রামমাধব আশা করছেন, বাংলাদেশে আগামী নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হবে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূমিকার প্রশংসা করে রামমাধব বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যু মিয়ানমারের সৃষ্ট সমস্যা। এ সমস্যা তাদেরই সমাধান করতে হবে। গতকাল সকালে ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বলে জানিয়েছেন বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা।

বৈঠক সূত্রের খবর, মিনিট বিশেকের আলোচনায় বাংলাদেশের নানান বিষয়ে আগ্রহের কথা জানান প্রতিবেশী দেশের রাজনৈতিক নেতা রামমাধব। আশা প্রকাশ করেন আবার আসার। এর পরের বার ঢাকার বাইরে যাওয়ার প্রত্যাশার কথা জানান রামমাধব। তিনি বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি সম্পর্কে নানান প্রশ্ন করেন। বাংলাদেশের নির্বাচনী প্রচারণায় স্লোগান, ব্যয়সংক্রান্ত নানান বিষয়ে আগ্রহ দেখান। এরই একপর্যায়ে গত নির্বাচনে বাংলাদেশের বড় রাজনৈতিক দলের অংশ না নেওয়ার কথা উঠলে রামমাধব নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণের কথা বলেন। বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, এটি ছিল অনানুষ্ঠানিক সৌজন্য সাক্ষাৎ। তবে বেশ কিছু বিষয়ে কথা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে আমাদের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। এ সম্পর্ক যেন আরও গভীর হয় সে বিষয়ে আমাদের পরস্পরের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা আশা করি ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ক্রমান্বয়ে আরও গভীর থেকে গভীরতর হবে। দুই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য দুই দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা যেমন প্রয়োজন আছে, তেমন প্রতিটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়ন দরকার। সেই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’ হানিফ বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সমস্যা। শরণার্থী হিসেবে আসার পরে এটা আমাদের ঘাড়ে চেপেছে। মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান করতে হবে। ভারতও মনে করে এটা মিয়ানমারের সমস্যা। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্যোগের কারণে সমস্যা সমাধান আস্তে আস্তে হয়ে যাবে।’ বৈঠকে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল ফারুক খান (অব.), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, আন্তর্জাতিক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর