Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৯ ২২:৫১

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করবেন না

রুহুল আমিন রাসেল

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করবেন না
আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক

দেশে শিক্ষার্থীদের পার্লামেন্টখ্যাত ঐতিহ্যবাহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয়        ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে কোনো কর্মকা- যেন ভাবমূর্তিতে আঘাত না হানে, কর্তৃপক্ষকে সে পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। তিনি বলেছেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ না করে নির্বাচনের প্রতিটি ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা দেখতে চাই। বহুল প্রত্যাশিত সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ ডাকসু নির্বাচনের দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সুন্দরভাবে পালন করতে হবে।’ ডাকসু নির্বাচন নিয়ে গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এ নির্বাচনে গণমাধ্যমের কর্মীরা যাতে নির্বিঘ্ন ভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন সে বিষয়টি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ডাকসু নির্বাচনের দিকে কেবল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী নয়, সারা দেশের ছাত্রসমাজ ও সাধারণ মানুষ তাকিয়ে আছেন। অনেক বছর পর বহুল প্রত্যাশিত ডাকসু নির্বাচন হচ্ছে। এ নির্বাচনে সুষ্ঠু ভোটের মাধ্যমে ছাত্রপ্রতিনিধি নির্বাচিত হবে, এটাই প্রত্যাশিত। আর নির্বাচিত ছাত্র নেতৃত্ব সুন্দরভাবে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে ডাকসুর গৌরব ফিরিয়ে আনুক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের এই শিক্ষক মনে করেন, ‘ডাকসুতে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে সবই করতে হবে। আমরা প্রতিটি ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি দেখতে চাই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থেই সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ নির্বাচন অত্যন্ত জরুরিভাবে দরকার। পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল ছাত্র-শিক্ষকের সুসম্পর্ক ধরে রাখতে ডাকসুতে স্বচ্ছ ছাত্রপ্রতিনিধিত্ব দেখতে চাই। এ ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিতে যাতে কোনো আঘাত না পড়ে।’ অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘ডাকসু ঘিরে রয়েছে সারা দেশের মানুষের প্রতাশা। তাই এ নির্বাচন কোনোভাবেই যাতে হতাশার কিছু না হয়। এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিরপেক্ষ ভূমিকা দেখতে চাই।’ তিনি ফজলুল হক হলের প্রাধ্যক্ষের পদ থেকে অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের পদত্যাগের ঘটনাকে দুঃখজনক উল্লেখ করে বলেন, অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের পদত্যাগে বাধ্য হওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে। তার মর্যাদাহানির বিষয়টি গুরুত্বসহকারে নিয়ে অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানকে পুনরায় স্বপদে ফিরিয়ে দিতে হবে। এসব কিছু বিবেচনায় রেখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ডাকসুর সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হবে।


আপনার মন্তব্য