শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৫২

সন্দেহ হলে পুলিশে দিন, খুন কেন

এম ফয়জার রহমান

সন্দেহ হলে পুলিশে দিন, খুন কেন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এম ফয়জার রহমান বলেছেন, ‘ভৌগোলিকভাবে আমরা অপরাধপ্রবণ অঞ্চলের মানুষ। আমরা যে অঞ্চলে বসবাস করছি, সেই অঞ্চলের মানুষ বিভিন্ন সময় নানা রকম অপরাধ কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়ে থাকে।’ গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ফয়জার রহমান বলেন, ‘কিছুদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন পেপার-পত্রিকায় আমরা ‘‘ছেলেধরা’’ গুজবের বিষয়টি শুনছি। এ ঘটনায় দেশব্যাপী ছেলেধরা সন্দেহে মারধরের ঘটনাও ঘটছে। মারধরের শিকার হয়ে অনেকে মারাও গেছেন। আসলেই এখন পর্যন্ত যারা মারধরের শিকার হয়েছেন, তাদের আচরণেও কিন্তু সন্দেহমূলক কিছু বিষয় ছিল। আর ছেলেধরা বিষয়টি আমাদের দেশে নতুন নয়। অনেক সময় দেখা গেছে, ছোট বাচ্চাদের ধরে নিয়ে কিডনি বের করে নেওয়া হয়, পঙ্গু করে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তিতে নামিয়ে দেওয়া হয়। এই বিষয়গুলো আবার নতুন করে মাথাচাড়া দিল কি না তা সরকারকে ভালোভাবে তদন্ত করতে হবে। আর ছেলেধরা সন্দেহে মানুষকে পিটিয়ে খুন করা থেকেও জনগণকে বিরত থাকতে হবে। যদি কোনো ব্যক্তির আচরণ সন্দেহজনক হয়, অবশ্যই সেই ব্যক্তিকে পুলিশে দিতে হবে, খুন করার মতো অপরাধে নিজেকে জড়ানো যাবে না। ছেলেধরা সন্দেহে খুন কেন?’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর