১২ জানুয়ারি, ২০২২ ০৩:৪০

চিনিযুক্ত পানীয় পানে ক্যান্সারের ঝুঁকি দ্বিগুণ হয়: গবেষণা

অনলাইন ডেস্ক

চিনিযুক্ত পানীয় পানে ক্যান্সারের ঝুঁকি দ্বিগুণ হয়: গবেষণা

প্রতীকী ছবি

কোল্ড ড্রিংকস ও সফট ড্রিঙ্কস খাওয়া থেকে শৌখিন মানুষদের এখনই সাবধান হতে হবে। কারণ যে সফট ড্রিঙ্কস আপনি খেয়ে ফেলেন, সেই পানীয় আপনাকে ক্যান্সার রোগের দিকে ঠেলে দিতে পারে। ‘গুট’ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা অনুসারে, প্রাপ্তবয়স্করা যারা প্রতিদিন দুই বা তার বেশিবার চিনিযুক্ত পানীয় পান করেন তাদের কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি দ্বিগুণ হয়।

গবেষণায় ফলের স্বাদযুক্ত পানীয়, স্পোর্টস এবং এনার্জি ড্রিংকস ইত্যাদি যে কোনও ধরণের চিনিযুক্ত পানীয়কে স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে। নারীদের এর থেকে আরও বেশি সতর্ক হওয়া দরকার। কারণ ৫০ বছর বয়সে পৌঁছানোর আগে তাদের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে। আপনার জেনে রাখা দরকার যে কোলন ক্যান্সার মারাত্মক ঠিকই, তবে এটি যদি সময় মতো শনাক্ত করা যায় এবং আপনার জীবনধারা নিয়ন্ত্রণ করা যায় তবে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যেতে পারে।

এই গবেষণাটি করার জন্য ৯৫,৪৬৪ জন অংশগ্রহণকারীকে প্রায় ২৪ বছর ধরে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছিল। এতে কোলন ক্যান্সারের বিষয়ে পারিবারিক ইতিহাস, জীবনযাত্রা এবং খাদ্যাভ্যাস সবই খেয়াল রাখা হয়েছিল। গবেষণা চলাকালীন, এটা জানা গেছে যে ১০৯ জন নারী যারা বেশি চিনিযুক্ত পানীয় গ্রহণ করেছিলেন তাদের ৫০ বছর বয়সের আগে কোলন ক্যান্সারের সমস্যা ছিল।

একই সময়ে, যে নারীরা দিনে একাধিক চিনিযুক্ত পানীয় পান করেন তাদের ক্যান্সারের ঝুঁকি দ্বিগুণ ছিল। যেখানে নারীরা সপ্তাহে একটি চিনিযুক্ত পানীয় পান করেন তাদের ক্যান্সারের ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে কম ছিল। গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে এই চিনিযুক্ত পানীয় খাওয়া কমিয়ে দিলে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি অনেকাংশে কমে যায়।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত যদি দেখা যায়, তাহলে চিনিযুক্ত পানীয় অন্যান্য দিক থেকেও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এসব পানীয়তে কৃত্রিম চিনি, প্রিজারভেটিভ ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। এর অতিরিক্ত সেবন স্থূলতার সমস্যা বাড়িয়ে দেয়। ক্রমবর্ধমান স্থূলতার কারণে অকাল হার্ট অ্যাটাক, বিপি, ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোনের সমস্যা অল্প বয়সেই ব্যক্তিকে ঘিরে ফেলে। এছাড়াও এই পানীয়গুলি আপনার লিভারের ক্ষতি করে। এতে উপস্থিত ফ্রুক্টোজ হজম করতে লিভারকে অনেক পরিশ্রম করতে হয়, যার কারণে অনেক সময় লিভার ফুলে যায়। তাই যুবক, শিশুসহ যে কোনও বয়সের মানুষকে এই ধরনের পানীয় সেবন এড়িয়ে চলতে হবে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর