Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:১৭

জাকির নায়েককে ভারতে না পাঠানোর সিদ্ধান্তে মাহাথিরের পাশে ইব্রাহিম

অনলাইন ডেস্ক

জাকির নায়েককে ভারতে না পাঠানোর সিদ্ধান্তে মাহাথিরের পাশে ইব্রাহিম

মুসলিম বক্তা জাকির নায়েককে এখনই ভারতে ফেরত পাঠাবে না মালয়েশিয়া। এমন সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। দেশটির প্রধানমন্ত্রীর এমন অবস্থানের জন্য প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের সাথে একমত পোষন করেছেন পিআরকে প্রেসিডেন্ট দাতুক সেরি আনোয়ার ইব্রাহিম।

মালয়শিয়ার সংবাদমাধ্যম 'বেরিতা হারিয়ান' জানায়, জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে এখনও তদন্ত চলছে। তাই মালয়েশিয়াতে তার আবস্থানকে সমর্থন করেন আনোয়ার ইব্রাহিম। তিনি আরও বলেন, ড. জাকির নায়েক উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে ভারতীয় ও চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেননি।

এর আগে, গত ২৩ শে আগস্ট জাকির নায়েককে এখনই ভারতে ফেরত পাঠাবে না মালয়েশিয়া বলে সিদ্ধান্ত জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। পুত্রজায়াতে এক সংবাদ সম্মেলনে মাহাথির বলেন, জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় থাকবে। এখনও পর্যন্ত আমি আমার অবস্থান বদলাইনি। জাকির নায়েককে তার দেশে ফেরত পাঠানো হবে কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, এমন মন্তব্য করেন মাহাথির মোহাম্মদ।

সাম্প্রতিক সময়ে মালয়েশিয়ায় বেশ বিপাকে রয়েছেন ইসলামি বক্তা জাকির নায়েককে নিয়ে। ইতোমধ্যে দেশটির সব প্রদেশে তার ধর্মীয় বক্তব্য প্রদানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

প্রায় তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন জাকির নায়েক। সেখানে তাকে স্থায়ী নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছে। তবে, সাম্প্রতিক সময়ে নিজের বক্তব্যের কারণে তাকে মালয়েশিয়া থেকে ভারতে ফেরত পাঠানোর দাবি উঠেছে। জাতিগত বিদ্বেষ ছড়িয়েছেন বলে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

সংখ্যালঘুদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন জাকির নায়েক। তবে তিনি দাবি করেছেন যে, তার বক্তব্যকে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। 

জাকির নায়েক বলেন, প্রকৃতপক্ষে তিনি মোটেও বর্ণবাদী নন। তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, তার সমালোচকরা তার বক্তব্যকে ভুলভাবে নিয়েছেন এবং তার বক্তব্যে মনগড়া কথা যোগ করা হয়েছে।

এ পর্যন্ত বেশ কয়েকবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে মালয়েশিয়ার ফেডারেল পুলিশ। গত ২২শে আগস্ট কুয়ালামপুরে ফেডারেল পুলিশ সদর দফতরে তাকে তৃতীয়বারের মতো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য