শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ আগস্ট, ২০২০ ১৫:৫৬
আপডেট : ৬ আগস্ট, ২০২০ ১৫:৫৯

রেকর্ড বৃষ্টিতে ভাসছে মুম্বাই!

অনলাইন ডেস্ক

রেকর্ড বৃষ্টিতে ভাসছে মুম্বাই!

বৃষ্টি অব্যাহত ভারতের মুম্বাই ও তার সংলগ্ন এলাকায়। ক্রমে পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকালেও ভারি বৃষ্টি, এখনো চলেছে বিভিন্ন জায়গায়। জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে বিভিন্ন এলাকা। বিরাট ধস নেমেছে পেড্ডার এলাকায়। 

এদিকে, মহারাষ্ট্রের পানি কর্নাটকের একটা বড় অংশও বানভাসি। আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

ঝড়-বৃষ্টিতে নাকাল মুম্বাই

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে প্রকৃতির রোষে সম্পূর্ণ বিপর্যস্ত মুম্বাই। গতকয়েক দিন থেকে এক এক টানা বৃষ্টি হচ্ছে। বুধবার বিকালে তার সঙ্গী হয় ঝোড়ো হওয়া। সন্ধ্যায় এক সময় ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১০৭ কিলোমিটার বেগে দমকা হাওয়া বয়ে যায় শহরের উপর দিয়ে। আর এই দুইয়ের তাণ্ডবে বাণিজ্যনগরীর অবস্থা আরও বেহাল।

নাগাড়ে বর্ষণে মুম্বাইয়ে বিরাট ধস

মুম্বাইয়ের পেড্ডার এলাকায় বুধবার রাতেই বিরাট ধস নামে। তার ফলে সকাল থেকেই সেখানে রাস্তা বন্ধ। বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যান চলাচল। সব গাড়ি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ভোগান্তি বেড়েছে মানুষজনের। চলছে রাস্তা পুনর্নির্মাণের কাজ।

মুম্বাই-নাসিক হাইওয়েতেও যানচলাচল প্রবল ভাবে বিপর্যস্ত। কল্যাণ ভিওয়ান্ডি বাইপাস, মুম্বরা বাইপাস থেকে থানে পর্যন্ত যান চলাচলের গতি অত্যন্ত শ্লথ। প্রবল বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ায় গাছ পড়ে মুম্বাইয়ের বিভিন্ন এলাকায় রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। সিওনের গান্ধী মার্কেট এলাকা, মুম্বাই সেন্ট্রাল, গোল দেভাল, সন্ত রোহিদাস চক-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় ট্র্যাফিক ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

কোলাবায় ৪৬ বছরে রেকর্ড বৃষ্টি

বুধবার কোলাবায় গত ৪৬ বছরে সর্বাধিক বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৮.৩০ পর্যন্ত সেখানে বৃষ্টির পরিমাণ ৩৩১.৮ মিলিমিটার। এর আগে ১৯৭৪ সালের অগস্ট মাসে এই পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছিল কোলাবায়। সঙ্গে ছিল ঘণ্টায় ১০৭ কিমি বেগে বয়ে যাওয়া ঝোড়ো হাওয়া। স্বাভাবিকভাবেই বানভাসি গোটা এলাকা। সান্তাক্রুজ এলাকায় ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১৪৬.১১ মিলিমিটার।

ঝড়-বৃষ্টিতে লণ্ডভণ্ড মুম্বাই

ঝোড়ো হাওয়া এবং বৃষ্টির জোড়া দাপটে লণ্ডভণ্ড অবস্থা মুম্বইয়ের। শহরের সরকারি জেজে হাসপাতালের ভিতরে জল জমে গিয়েছে। একাধিক এলাকায় জল জমে এবং গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যান চলাচল। ঝড়জলের দাপটে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে মুম্বাইয়ের লাইফলাইন লোকাল ট্রেন পরিষেবাও। মাঝ পথে আটকে পড়ে দু'টি লোকাল ট্রেন। আরপিএফের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ট্রেনের আটকে পড়া যাত্রীদের উদ্ধার করেন NDRF-এর জওয়ানরা।

'বাড়িতেই থাকুন', অনুরোধ মুখ্যমন্ত্রীর

একমাসে যে পরিমাণ বৃষ্টি হওয়ার কথা, আগস্টের পাঁচ দিনের মধ্যেই তার ৬৪ শতাংশ বৃষ্টি হয়ে গেছে মুম্বাইয়ে। 

ভারতের জাতীয় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, এ দিন আরও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে মুম্বাই জুড়ে। জরুরি কাজ ছাড়া মুম্বাইকরদের বাড়ি থেকে বেরোতে বারণ করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

মহারাষ্ট্র পানি ছাড়ায় বানভাসি কর্নাটক

মহারাষ্ট্র পানি ছাড়ায় কর্নাটকের একটা বড় অংশ বানভাসি। একইসঙ্গে চলছে নাগাড়ে বৃষ্টি। বন্যা এড়াতে উত্তর কানাড়ায় বিশাল বাঁধের লকগেট খুলে পানি ছাড়া শুরু করেছে সরকার। অন্যান্য বাঁধের পানিও ছাড়া হচ্ছে। বিভিন্ন নদীর পানিস্তর বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াইএস ইয়েদুরাপ্পা হাসপাতাল থেকেই বন্যাত্রাণে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ। সূত্র: এই সময়

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর