শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর, ২০২০ ২১:০৭

১৫ বছর ধরে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে হত্যার পর থানায় ফোন নারীর

অনলাইন ডেস্ক

১৫ বছর ধরে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে হত্যার পর থানায় ফোন নারীর
প্রতীকী ছবি

ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করে নিজেই পুলিশে খবর দিলেন এক নারী। সম্প্রতি ভারতে এই ঘটনা ঘটে। এর পরেই মধ্যপ্রদেশ পুলিশ ওই নারীকে গ্রেফতার করে। জানা গেছে, ধর্ষককে ২৫টি ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়। ওই নারী জানিয়েছেন, ১৫ বছর ধরে তাকে ধর্ষণ করে আসছে ওই ব্যক্তি। গত ১২ অক্টোবর ফের সেই চেষ্টা করতে গেলেই তিনি অস্ত্র হাতে তুলে নেন। নিহতের নাম ব্রিজভূষণ শর্মা। 

ভোপাল পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্রিজভূষণ জেলার অশোক নগরের বাসিন্দা। খুনের অভিযোগে নারীর বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় মামলা করেছে পুলিশ। ওই নারী আরও জানিয়েছেন, ব্রিজভূষণ তার প্রতিবেশী ছিল। মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি প্রথমবার ওই ব্যক্তির হাতে ধর্ষিত হন। সেই মুহূর্তের একটি ভিডিও তুলে রাখে ব্রিজভূষণ। এরপর ব্ল্যাকমেলিং চলতে থাকে। ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন তিনি ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। ওই নারীর বিয়ে হয়ে যাওয়ার পরেও একইভাবে হুমকি ও অত্যাচার চলতে থাকে। দিন দিন তা বাড়তেই থাকে। এবার তাই নির্যাতককে চরম শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন দুই মেয়ের মা।

খুনের দিন ঠিক কী হয়েছিল তাও পুলিশকে জানিয়েছেন নারী। তার ভাষ্য, গত ১২ অক্টবোর মদ্যপ অবস্থায় ব্রিজভূষণ তার বাড়িতে আসে। সেদিন তার স্বামী কর্মসূত্রে শহরের বাইরে ছিলেন। সেই সুযোগটা নিয়েই ধর্ষণ করতে আসে ব্রিজভূষণ। নারীর দুই মেয়ে তখন অন্য ঘরে ঘুমাচ্ছিল। এমন সময় মেয়েদের হেনস্থা করার কথা বলে ব্রিজভূষণ। এর পরেই তিনি রান্নাঘর থেকে ছুরি নিয়ে এসে এলোপাথাড়ি ভাবে আঘাত শুরু করেন। মৃত্যু হয় ব্রিজভূষণের। এর পরেই থানায় ফোন করে বিষয়টি জানিয়ে খুনের কথা স্বীকার করেন ওই নারী। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর