শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ জুলাই, ২০২১ ১১:১৮
আপডেট : ২৪ জুলাই, ২০২১ ১৩:০৪
প্রিন্ট করুন printer

বিএসএফের হাতে আটক বাংলাদেশি কিশোর, 'গুডউইল সিগনেচার' হিসেবে বিজিবিকে হস্তান্তর!

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

বিএসএফের হাতে আটক বাংলাদেশি কিশোর, 'গুডউইল সিগনেচার' হিসেবে বিজিবিকে হস্তান্তর!
Google News

দাদা থাকেন ভারতে, তাই তার সাথে দেখা করার জন্য লুকিয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত পার হয়ে চলে আসে বাংলাদেশি কিশোর। কিন্তু বিপত্তি বাধে দেশে ফেরার পথে, বাংলাদেশে প্রবেশের আগেই ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) আটক করে ওই বাংলাদেশি কিশোরকে। যদিও ওই কিশোরের ভবিষ্যতের দিকটি মাথায় রেখেই ‘সৌজন্যতার নির্দশন’ (গুডউইল সিগনেচার) হিসেবে তাকে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর হাতে তুলে দেওয়া হয়। 

বাংলাদেশি ওই কিশোরের নাম মো. নয়ন আলি (১২), বাবা সাদিরুল আলি, বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নারায়নপুর ডাকঘরের জোহরপুর গ্রামে। তার দাদা ইরামুল শেখ থাকেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার রঘুনাথগঞ্জ থানার অধীন বাজিতপুর গ্রামে। দাদুর সাথে দেখা করতেই সীমান্ত টপকে বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকাল ৮টায় বাজিতপুর গ্রামে আসে নয়ন।  

পরে দাদার সাথে দেখা করে দেশে ফিরে যাওয়ার ওই দিন সকাল ১১ টা নাগাদ পিরোজপুর সীমান্ত চৌকি এলাকায় সীমান্তে টহলরত বিএসএফের ৭৮ নম্বর ব্যাটেলিয়নের সদস্যদের হাতে ধরা পড়ে নয়ন। নয়নকে জেরা করে ভারতে প্রবেশের কারণ জানতে পারে সীমান্তরক্ষী বাহিনী। 

এ ব্যাপারে গতকাল শুক্রবার বিএসএফের পক্ষ থেকে একটি সংবাদ বিবৃতি দিয়ে ৭৮ নম্বর ব্যাটেলিয়নের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডিং অফিসার শ্রী বিশ্ববন্ধু জানান ‘প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে, ওই বাংলাদেশি কিশোর কোন অসৎ উদ্দেশ্যে ভারতে প্রবেশ করেনি। তার দাদার সাথে সাক্ষাত করতেই সে আন্তর্জাতিক সীমান্ত অতিক্রম করেছিল। যদিও অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক সীমান্ত অতিক্রম করা একটা অপরাধ কিন্তু কিশোরটির ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে ও সীমান্তবর্তী মানুষের আবেগের কথা মাথায় রেখেই ‘সৌজন্যতার নির্দশন’ স্বরূপ তাকে বিজিবি’র হাতে তুলে দেওয়া হয়।'  

 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 

এই বিভাগের আরও খবর