Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:৩১

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান

বখাটে কোপাল দুই বোনকে

ফরিদপুর প্রতিনিধি

বখাটে কোপাল দুই বোনকে

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় রাতের আঁধারে আপন দুই বোনকে কুপিয়ে জখম করেছে এক বখাটে কিশোর। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে আলাউদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ফরিদপুর-রাজবাড়ী সীমান্তের বালিয়াকান্দির খামার মাগুরা গ্রামে। মঙ্গলবার রাতে আহত দুই বোনকে প্রথমে মধুখালী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আহত স্কুল ছাত্রীর পিতা রহমান মৃধা জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে খামার মাগুড়া গ্রামের মোক্তার সরদারের ছেলে আলাউদ্দিন সরদার ধারালো অস্ত্র নিয়ে দুই মেয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রী আছিয়া ও নবম শ্রেণির ছাত্রী হাসনাকে এলোপাতাড়িভাবে কোপাতে থাকে। দুই বোনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে বখাটে আলাউদ্দিন পালিয়ে যায়। পরে আহত দুজনকে মধুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার রাতেই তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, আহত অবস্থায় দুজনকে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা, হাত, পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। দুই ছাত্রীর পিতা আরও জানান, তার বড় মেয়েকে আলাউদ্দিন প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে প্রায়ই তার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করত আলাউদ্দিন। মূলত প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এ ঘটনার পর গতকাল সকালে পুলিশ আলাউদ্দিনকে আটক করেছে। বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসিনা বেগম জানান, দুই স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় আলাউদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। কী কারণে দুই বোনকে কোপানো হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য