শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ২৩:৩৮

কালের কণ্ঠের গোলটেবিল আলোচনা

সম্ভাবনাময় চামড়াশিল্পে নানামুখী সংকট

নিজস্ব প্রতিবেদক

সম্ভাবনাময় চামড়াশিল্পে নানামুখী সংকট

হাজারীবাগ থেকে চামড়াশিল্প সাভারে স্থানান্তর করা হলেও কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার প্লান্ট (সিইপিটি) কার্যকর না থাকায় পিছিয়ে আছে চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য। যদিও গার্মেন্ট পণ্যের মতো বিশ্বে এই শিল্পের বিশাল সম্ভাবনা রয়েছে। জমির রেজিস্ট্রেশন না পাওয়া, পণ্য রপ্তানিতে বন্দরে অব্যবস্থাপনা, ব্যাংকঋণের অপর্যাপ্ততা ও দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে না ওঠায় সংকটেই ঘুরপাক খাচ্ছে এই শিল্প। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার মাধ্যমে এই শিল্পকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব বলে মনে করছেন শিল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও গবেষকরা।

গতকাল দৈনিক কালের কণ্ঠ আয়োজিত ‘চামড়াজাত পণ্যের সম্ভাবনা ও করণীয়’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে চামড়াশিল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিরা এ শিল্পের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ মিলনায়তনে কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনের সঞ্চালনায় গোলটেবিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। শিল্পসচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইর সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, কালের কণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামাল, লেদারগুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এলএফএমইএবি) সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. শাহীন আহমেদ, বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলী আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লেদার ইনঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আফতাব আলী শেখ, বাংলাদেশ হাইডস্ অ্যান্ড স্কিনস মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। প্রধান অতিথি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান তার বক্তব্যে চামড়াশিল্পের বর্তমান সমস্যা সমাধানে সাধ্যমতো সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। এ শিল্পের বিদ্যমান সমস্যাগুলো সমাধান করা অসম্ভব নয় বলে মত দেন শিল্পসচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।


আপনার মন্তব্য