শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩ মে, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ মে, ২০১৮ ২৩:০১

বজ্রপাতে গেল আরও ১৭ প্রাণ

প্রতিদিন ডেস্ক

দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে আরও ১৭ জনের প্রাণ গেছে। গতকাল পর্যন্ত দুদিনে যারা নিহত হয়েছেন তাদের মধ্যে আছেন বগুড়ায় মা ও ছেলেসহ ৩ জন, কিশোরগঞ্জে ১ জন, সুনামগঞ্জে ৪ জন, হবিগঞ্জে ৩ জন গাইবান্ধায় মা-ছেলে মিলিয়ে ২ জন, সিরাজগঞ্জে ১ জন, টাঙ্গাইলে ১ জন এবং সিলেটে দুইজন রয়েছেন। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—বগুড়া : বজ্রপাতে বগুড়ার সোনাতলা ও শিবগঞ্জে তিনজন নিহত হয়েছেন। তারা হলেন সোনাতলা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের শালিখা গ্রামের আবদুস ছালামের স্ত্রী বিলকিছ বেগম (৩৮) ও তাদের ছেলে স্থানীয় শালিখা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র সোহেল রানা (১৪) এবং শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের মেঘাখর্দ্দ গ্রামের তবিবর রহমানের একমাত্র ছেলে কৃষক তমেদুল ইসলাম (৪৫)। জানা গেছে, সোনাতলা উপজেলায় ধান খেতে ধান কাটার কাজে থাকা ছেলেকে ভাত খাওয়াতে গিয়ে বজ পাতে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়। শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের মেঘাখর্দ্দ গ্রামের তমেদুল ইসলাম সকালে করলার জমিতে কাজ করছিলেন। এ সময় বজ পাতের ঘটনা ঘটে। কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জের নিকলীতে বজ পাতে আলী আকবর (৪৪) নামে এক কৃষক নিহত ও আরও দুইজন আহত হয়েছেন। নিহত আলী আকবর আউলিয়াপাড়া গ্রামের মৃত নীল মামুদের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে বাড়ির পাশে জমিতে কাজ করছিলেন তারা। এ সময় বৃষ্টির সঙ্গে বজ পাত হয়। এতে ঘটনাস্থলেই আলী আকবরের মৃত্যু হয়। সুনামগঞ্জ : কালবৈশাখী ঝড়ের সময় ধান কাটতে গিয়ে বজ পাতে সুনামগঞ্জে ৪ কৃষক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ৬ জন। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সদর, জামালগঞ্জ ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় এ বজ পাতের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন জামালগঞ্জ উপজেলার পুজারগাঁও গ্রামের কমলাকান্ত তালুকদার, ভীমখালী ইউনিয়নরে খলক্তা গ্রামের হিরন মিয়া, সদর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের আবদুর রশিদ ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ধনপুর এলাকার মো. আলম। বজ পাতের ঘটনায় জামালগঞ্জ, বিশ্বম্ভরপুর ও সদর উপজেলায় আহত রয়েছেন ৪ কৃষক ও ২ বালু শ্রমিক। হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের বানিয়াচং ও নবীগঞ্জের হাওরে বজ পাতের ঘটনায় ৩ কৃষক নিহত ও ২ আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন উপজেলা সদরের বাসিয়াপাড়া এলাকার তৈয়ম উল্লাহর ছেলে করিম উল্লাহ (৬৫) ও বড়ইউড়ি গ্রামের তাহির মিয়ার ছেলে শাহীন মিয়া (২৫)। আহত হয়েছেন বড়ইউড়ি গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে জাহেদ মিয়া (৩০) ও নবীগঞ্জ উপজেলার রুকনপুর গ্রামের আবদুল জব্বার। বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাম্মেল হক জানান, বেলা ১১টার দিকে বড়ইউড়ি গ্রামের শাহীন মিয়া ও তার ভাতিজা জাহেদ মিয়া পার্শ্ববর্তী গুণই হাওরে কৃষি কাজের জন্য যান। এ সময় বজ পাত ঘটলে তারা এর শিকার হন। অপরদিকে একই উপজেলার বাসিয়াপাড়া গ্রামের করিম উল্লাহ মকার হাওরে ধান কাটতে হাওরে গেলে তার ওপর বজ পাত ঘটে।  গাইবান্ধা : গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ি ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামে দুপুরে বজ পাতে মা বিলকিছ বেগম (৪০) ও তার ছেলে সোহেল মিয়া (১৬) মারা যান। এ সময় তার স্বামী আবদুস ছালাম ও ছেলে আবু তারেক এবং গোলজার রহমান গুরুতর আহত হন। জানা গেছে, আবদুস ছালাম তার স্ত্রী, দুই ছেলে ও কয়েকজনকে নিয়ে বাড়ির পাশে জমিতে বোরো ধান কাটছিলেন। এ সময় বজ পাত ঘটে।  সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চরাঞ্চলে ধান কাটতে গিয়ে বজ্রপাতে ছানোয়ার হোসেন (২৯) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রফিকুল (৪৫) ইসলাম নামে আরেক কৃষক আহত হয়েছেন। উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নের ছিন্নার চর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ছানোয়ার হোসেন ওই গ্রামের আবদুল হকের ছেলে ও আহত রফিকুল ইসলাম একই গ্রামের আবদুস সাত্তারের ছেলে।  টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বজ পাতে সখিনা বেগম (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের হাড়ভাঙা গ্রামে এ বজ পাতের ঘটনা ঘটে। নিহত সখিনা বেগম হাড়ভাঙা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী। জানা গেছে, বৃষ্টির সময় বাড়ির পাশে খোলা জমিতে ধান শুকানোর উঠান তৈরির কাজ করার সময় বজ পাতের ঘটনা ঘটে।  সিলেট : সিলেটের কানাইঘাটে বজ পাতে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বিকালে উপজেলার বড়চতুল ইউনিয়নের উপরবড়াই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন উপরবড়াই গ্রামের করিম আলীর ছেলে ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী তোফায়েল আহমদ তামীম (১৩) ও তার চাচাতো ভাই ফখরুল আহমদের ছেলে মাদ্রাসা শিক্ষার্থী সালমান আহমদ (১১)। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হোসাইন জানান, শিশু দুইটি বাড়ির পাশে একটি হাওরে ধান কাটার শ্রমিকদের জন্য খাবার নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় বজ পাতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।


আপনার মন্তব্য