শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২ জুন, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুন, ২০১৮ ০০:০৭

গাজীপুর সিটি নির্বাচন

জুমার নামাজেও চলছে প্রচারণা চাইলেন দোয়া

খায়রুল ইসলাম, গাজীপুর

জুমার নামাজেও চলছে প্রচারণা চাইলেন দোয়া

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রধান দুই দলের মেয়র প্রার্থীরা জুমার নামাজে অংশ নিয়ে দোয়া চাইলেন। মেয়রদের পাশাপাশি কাউন্সিলর প্রার্থীরাও পিছিয়ে ছিলেন না। আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. জাহাঙ্গীর আলম গতকাল নগরীর কোনাবাড়ী বাইমাইল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। জুমার খুতবার পূর্বে মুসল্লিদের কাছে তিনি দোয়া ও সহযোগিতা চেয়ে বলেন, ‘এই শহরকে একটি আধুনিক গ্রিন সিটি ও ক্লিন সিটি হিসেবে গড়তে চাই। আপনাদের সবার সহযোগিতায় আগামী ২৬ জুনের নির্বাচনে নৌকার বিজয়ের মাধ্যমে নতুন যুগের সূচনা হবে। এই নগরকে সবার বাসযোগ্য এবং শিল্পবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলব।’ বিকালে তিনি ৯নং ওয়ার্ডের কুদ্দুসনগর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ। মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী সেলিনা ইউনুসের সভাপতিত্বে ইফতার-পূর্ব আলোচনায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেন, বৃষ্টি হলেই গাজীপুরে জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগ, সঙ্গে বাড়ে যানজট। অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থাই এই সমস্যা সৃষ্টি করেছে। আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম নির্বাচিত হলে এসব সমস্যা দূর হবে।’ তিনি আগামী ২৬ জুন নির্বাচনে জাহাঙ্গীরকে সমর্থন দেওয়ার জন্য উপস্থিত মুসল্লিদের আহ্বান জানান। অন্যদিকে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৪তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগ ৩৭ এবং ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে। গাজীপুর-২ আসনের এমপি মো. জাহিদ আহসান রাসেল দুটি ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। এদিকে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার গতকাল নগরীর সালনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। পরে তিনি কোনাবাড়ী ১০নং ওয়ার্ডের আমবাগ এলাকায় শহীদ ক্যাডেট স্কুল প্রাঙ্গণে স্থানীয় বিএনপি আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। ইফতার-পূর্ব আলোচনায় তিনি বলেন, ‘আমি সবসময় সামাজিক অপরাধের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলাম। আপনাদের সহযোগিতায় আমৃত্যু সামাজিক অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াই করে সমাজটাকে সুন্দর করতে চাই।’ ইফতারে অন্যদের মধ্য উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলন, জেলা সাধারণ সম্পাদক কাজী ছাইয়েদুল আলম বাবুলসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।


আপনার মন্তব্য