Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

প্রকাশ : বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩২

নির্বাচনের পর প্রথম সফর

ছয় দিনের জন্য কাল জার্মানি ও আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

ছয় দিনের জন্য কাল জার্মানি ও আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল জার্মানি যাচ্ছেন। সেখান থেকে প্রতিরক্ষা সম্মেলনে যোগ দিতে আগামী শনিবার তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) যাবেন। জার্মানি ও ইউএইতে ছয় দিনের সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী বুধবার দেশে ফিরে আসবেন। একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর এটিই প্রধানমন্ত্রীর প্রথম বিদেশ সফর। প্রধানমন্ত্রীর সফরের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে আজ পররাষ্ট্র দফতরে সংবাদ সম্মেলন করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। সফরসূচি অনুসারে, জার্মানিতে নিরাপত্তা সম্মেলনের সাইডলাইনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেশটির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল, কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি, মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসিসহ বেশ কয়েকজন সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে। ইউএইতে তিনি আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী মুহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুমের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন। এ ছাড়া দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স ও আমিরাতের সামরিক বাহিনীর উপপ্রধান শেখ মুহাম্মদ বিন জায়েদ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। জার্মানির মিউনিখে নিরাপত্তা সম্মেলনে অন্তত ৩৫টি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান, ৫০টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ৩০টি দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অংশ নেবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলা ও রোহিঙ্গা সংকটের ওপর আলোকপাত করে বক্তব্য দেবেন। সম্মেলনের সাইডলাইনে কাতারের আমির ও মিসরের প্রেসিডেন্ট ছাড়াও অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান ক্রুজ, নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী এমা সোলবার্গ, ইইউর জ্যেষ্ঠ প্রতিনিধি ফেদরিকা মেঘেরিনি, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ও রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌজন্য সাক্ষাতের কথা রয়েছে। মিউনিখ সম্মেলন আন্তর্জাতিক নিরাপত্তানীতি নিয়ে বিতর্কের জন্য বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ফোরামে পরিণত হয়েছে। বিগত পাঁচ দশক ধরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতি বছর ফেব্রুয়ারিতে এ সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের নীতিনির্ধারক ও চিন্তাবিদরা নিরাপত্তার বর্তমান ও ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ নিয়ে বিতর্কে অবতীর্ণ হন।

অন্যদিকে দুবাইতে অনুষ্ঠেয় আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা সম্মেলনে বিশ্বের ১ হাজার ২০০-এর বেশি প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞ অংশ নেবেন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীও হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর