Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ জুলাই, ২০১৯ ২৩:০৯

স্কুলে অভিযোগ বাক্স রাখার পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্কুলে অভিযোগ বাক্স রাখার পরামর্শ
রাজধানীতে গতকাল ধর্ষণবিরোধী প্রতিবাদে এক শিশু ছবি : জয়ীতা রায়

শিশু নির্যাতন রোধে দেশের প্রতিটি স্কুলে অভিযোগ বাক্স রাখার পরামর্শ দিয়েছে হাই কোর্ট। গতকাল বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান এবং বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ। তিনি বলেন, শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে সম্ভাব্য জাতীয় নীতিমালায় প্রতিটি স্কুলে শিশুদের অভিযোগ গ্রহণের জন্য একটি অভিযোগ বাক্স রাখার বিষয়টি বিবেচনা করতে বলেছে আদালত। শিশুরা তাদের নির্যাতনের অভিযোগগুলো মা-বাবা বা স্কুলের শিক্ষক, কারও কাছেই বলতে পারে না। সেক্ষেত্রে স্কুলে একটি অভিযোগ বাক্স থাকলে সেখানে শিশুরা অভিযোগগুলো নির্ভয়ে তুলে ধরতে পারবে। এই অভিযোগ বাক্সের বিষয়টি প্রচার করতে হবে। একই সঙ্গে প্রতিরোধের কমিটিতে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে আদালত। কারণ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধেও তো নির্যাতনের অভিযোগ আসতে পারে। তাই জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের কোনো কর্মকর্তাকে ওই কমিটিতে যুক্ত করা যায় কিনা সে বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ নিন। এ ছাড়া অরিত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় বুলিং নিরোধ কমিটির অগ্রগতি প্রতিবেদন আগামী ২২ অক্টোবরের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে ভিকারুন্নিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী অরিত্রীর আত্মহত্যার খবর প্রকাশের পর ২০১৮ সালের ৪ ডিসেম্বর হাই কোর্ট এ বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেয়। তখন শিশু নির্যাতন (বুলিং) প্রতিরোধে একটি জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নে অতিরিক্ত শিক্ষা সচিবের  নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করে আদালত। এক মাসের মধ্যে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নে ও অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার কারণ অনুসন্ধানের প্রতিবেদনের পাশাপাশি রুল জারি করে আদালত। রুলে অরিত্রীর আত্মহত্যার মতো ঘটনা প্রতিরোধের উপায় বের করে একটি জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নের পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়।


আপনার মন্তব্য