শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:২৩

কলকাতায় গাড়িচাপায় দুই বাংলাদেশিকে হত্যা চালক গ্রেফতার

কলকাতা প্রতিনিধি

কলকাতায় গাড়িচাপায় দুই বাংলাদেশিকে হত্যা চালক গ্রেফতার

অফিস থেকে ছুটি নিয়ে কলকাতায় এসেছিলেন চিকিৎসা করাতে। তার মধ্যেই সময় বের করে ভ্রমণেরও পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু নিয়তির কাছে হার মানতে হলো, লাশ হয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে দুই তরুণ বাংলাদেশি নাগরিককে।

শুক্রবার রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তাদের, আহত হয়েছেন আরও এক বাংলাদেশি নাগরিকসহ কয়েকজন ভারতীয় নাগরিক। চালককে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাত ১টা ৫০ মিনিটে কলকাতার  শেক্সপিয়ার সরণি ও লাউডন স্ট্রিটের সংযোগস্থলে ওই ভয়াবহ দুর্ঘটনাটি ঘটে। বিড়লা প্ল্যানেটোরিয়ামের দিক থেকে একটি জাগুয়ার গাড়ি আসছিল লাউডন স্ট্রিটের দিকে, উল্টোদিক থেকেই আসছিল একটি মার্সিডিজ গাড়ি। ওই সংযোগস্থলেই মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় দুটি গাড়ির। প্রথমে জাগুয়ারটি ধাক্কা মারে মার্সিডিজটিকে। এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেটি ধাক্কা মারে পাশেই থাকা একটি পুলিশ কিয়স্কে। গভীর রাতে প্রবল বর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে ওই কিয়স্কেই তখন আশ্রয় নিয়েছিলেন তিনজন। দ্রুতবেগে আসা জাগুয়ার গাড়িটি পিষে দেয় দুজনকে। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় কাজী মহম্মদ মইনুল আলম (৩৬), ফারহানা ইসলাম তানিয়া (৩০)। আহত হন গোপালগঞ্জের বাসিন্দা আবদুর রহিম মোল্লা (২৩)। গাড়ির ধাক্কায় দুমড়ে মুচড়ে যায় পুলিশ কিয়স্কটি। দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন শেক্সপিয়ার সরণি থানার পুলিশ। সঙ্গে সঙ্গে সবাইকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। সেখানেই দুই বাংলাদেশি নাগরিককে সরকারিভাবে মৃত বলে ঘোষণা দেন চিকিৎসক। দুর্ঘটনায় আহত হন মার্সিডিজ গাড়ির চালক ও ভিতরে থাকা আরোহীদেরও। তাদেরকেও নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতার ওই সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে। যদিও রাতে প্রাথমিক চিকিৎসার পর সকালে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয় আহত আবদুর রহিম মোল্লাসহ মার্সিডিজের চালক ও আরোহীদের। দুর্ঘটনার সময় জাগুয়ার গাড়িটি ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে যাচ্ছিল। শুধু তাই নয়, ট্রাফিক সিগন্যাল লঙ্ঘন করে বলেও জাগুয়ারের চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর