Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৫২

আত্মসমর্পণ করে জামিন ফখরুলসহ বিএনপির আট নেতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

আত্মসমর্পণ করে জামিন ফখরুলসহ বিএনপির আট নেতার

পুলিশের কাজে বাধা ও নাশকতার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ আট নেতা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন। গতকাল দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারীর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পান তারা। জামিন পাওয়া অন্য আসামিরা হলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। আসামিপক্ষের আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, এ কে এম এহসানুর রহমানসহ অন্যদের মাধ্যমে এই আট নেতা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত ৫ হাজার টাকা বন্ডে আসামিদের জামিন মঞ্জুর করে। পরে এহসানুর রহমান জানান, বিএনপির এই আট নেতাকে ৫ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত। মামলার অভিযোগে বলা হয়, ২০১৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে জাতীয়তাবাদী দল, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবিরের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের উপস্থিতিতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, আমান উল্লাহ আমান, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার, রুহুল কবীর রিজভী, ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উপস্থিতিতে সরকারবিরোধী উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়াসহ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সমাবেশ থেকে ফেরার পথে হাতিরঝিল থানাধীন মগবাজার রেলগেটে ৭০-৮০ জন রাষ্ট্রীয় নাশকতা ও ষড়যন্ত্রমূলক কার্যক্রম করার লক্ষ্যে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি ও যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি করেন। তারা পুলিশকে হত্যার উদ্দেশ্যে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। ওই ঘটনায় হাতিরঝিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শরিফুল ইসলাম ৫৫ জনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। গত ১৮ এপ্রিল এ মামলায় আপিল বিভাগের রায় প্রকাশের পর বিচারিক আদালতে পৌঁছানোর দুই সপ্তাহের মধ্যে ১৬ নেতাকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় তারা বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করেন এবং জামিন চেয়ে আবেদন জানান।


আপনার মন্তব্য