শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২৩:৩৪

ভারতে এনকাউন্টার নিয়ে তোলপাড়

প্রতিদিন ডেস্ক

ভারতে এনকাউন্টার নিয়ে তোলপাড়

ভারতের তেলেঙ্গানায় এনকাউন্টার করে চার ধর্ষককে মেরে ফেলার ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। কার্যত এ ঘটনায় দ্বিমত তৈরি হয়েছে। একদিকে চার ধর্ষককে এনকাউন্টার করায় যেমন পুলিশের উদ্দেশে পুষ্পবৃষ্টি হয়েছে, অন্যদিকে এভাবে আইন হাতে তুলে নেওয়া কতটা যুক্তিযুক্ত- সে প্রশ্নও উঠেছে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা, আজকাল, গণশক্তি। অভিযোগ উঠেছে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণ না হতেই এ হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে। পুলিশের উদ্দেশে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, হেফাজতে থাকা অবস্থায় হাতকড়া পরা আসামিরা কীভাবে অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করল, এবং পুলিশকে গুলি করল? পুলিশ অত রাতেই বা কেন একসঙ্গে চার আসামিকে নিয়ে ওই স্থানে গেল? অথচ এই পুলিশই ধর্ষকের পরিবারকে মামলার ব্যাপারে কোনো সহযোগিতা করেনি, এবং আসামি ধরতেও উদ্যোগ নেয়নি। অবশেষে চাপের মুখে তারা আসামী ধরলেও অনেক স্বাক্ষী-প্রমাণ চাপা দিতে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকা- ঘটিয়েছে কিনা- সে প্রশ্নও উঠেছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও বলেছেন, ‘এ ভাবে আইন হাতে তুলে নেয়া যায় না। দ্রুত চার্জশিট দিয়ে অভিযুক্তদের শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।’ সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, ‘বিচারব্যবস্থার বাইরে গিয়ে খুনের ঘটনা কখনো মহিলাদের সুরক্ষা প্রশ্নের সমাধান হতে পারে না।’

এদিকে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, ‘এটা ঠা া মাথার খুন’ এ বক্তব্য জানিয়ে তেলেঙ্গনা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন জমা পড়েছে। এ আবেদন বিবেচনায় নিয়ে হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, চার অভিযুক্তের মৃতদেহের ময়নাতদন্তের ভিডিও ফুটেজ একটি কম্প্যাক্ট ডিস্ক বা  পেন ড্রাইভে নিয়ে তা মেহবুবনগরের মুখ্য জেলা বিচারকের কাছে পেশ করতে হবে। একই সঙ্গে  মেহবুবনগরের মুখ্য ও জেলা বিচারককে তা গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়ে বিচারপতিরা বলেছেন, পেন ড্রাইভ বা কম্প্যাক্ট ডিস্ক গতকাল (শনিবার) বিকেলের মধ্যে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে জমা দিতে হবে। গত শুক্রবার তেলেঙ্গনার হাইকোর্ট জরুরীভিত্তিক এই আবেদনের শুনানিতে আরও জানিয়েছে, আগামী সোমবার রাত ৮টা পর্যন্ত এনকাউন্টার হওয়া লাশগুলো সংরক্ষণ করতে হবে। নির্দেশে উল্লেখ করা হয়, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানি করবে তেলেঙ্গনা হাইকোর্ট।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
close