শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২৩:৫২

কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ

সরকারি জায়গা দখল করে নির্মাণ স্থাপনা সরাতে চিঠি

জহুরুল ইসলাম, কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ায় জেলা পরিষদ ও এর চেয়ারম্যান রবিউল ইসলামের দখলে থাকা তিনটি জমি উদ্ধারে নোটিস করা হয়েছে। এর মধ্যে শহরের উপকণ্ঠে গড়াই তীরে জেলা প্রশাসনের ১৫ একর, হাউজিংয়ে গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের দুই একর এবং লাহিনী এলাকায় সড়ক ও জনপথের প্রায় ৫ শতক জমি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জবর দখল করে ভোগ করছেন।

ইতিমধ্যে সড়ক ও জনপথ থেকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে দখলকৃত জমি থেকে সকল প্রকার স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নোটিস দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন থেকে দখলকৃত জমি থেকে স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশনা জারি করা হচ্ছে। একই সঙ্গে আদালতে মামলা থাকায় হাউজিং এলাকায় জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের দুই একর জমিতে চলা উন্নয়ন কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, বড় বাজার এলাকায় গড়াই নদীর তীরে জেলা প্রশাসনের অধীনে থাকা ১৫ একর জমি জেলা পরিষদ দখল করে কোনো অনুমতি না নিয়ে পার্ক নির্মাণ কাজ করছে। পাঁচ বছর ধরে চলে আসছে পার্কের কাজ। দখলকৃত নদীর জায়গায় সরকারি অর্থে পার্কের বেশ কিছু কাজ ইতিমধ্যে শেষ করা হয়েছে। এদিকে জেলা প্রশাসন থেকে আগস্ট মাসে সরেজমিন পরিদর্শন করে ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপর সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তা একটি প্রতিবেদন দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর। কয়েকদিন আগে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী অবৈধ দখল ও উচ্ছেদের বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে জেলা প্রশাসন বরাবর পত্র দিয়েছেন। পত্রে দখলকৃত জমি উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তিনি জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করেছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর