শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ মার্চ, ২০২১ ২৩:৫৪

চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী হতে লাগবে প্রত্যয়ন, স্বতন্ত্র কিছুই না

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৮ মার্চ মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময়

গোলাম রাব্বানী

আগামী ১১ এপ্রিল শুরু হচ্ছে প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। দেশের ৩৭১ ইউপিতে আগামী ১৮ মার্চ মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় শেষ হবে। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার সুযোগ পারবেন সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের ভোটাররা। সাধারণ ও সংরিক্ষত ওয়ার্ডে প্রার্থী হতে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ভোটার তালিকায় তার নাম থাকতে হবে। তবে যে কোনো পদে প্রার্থী হতে হলে, তার বয়স হতে হবে ২৫ বছরের বেশি। চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে জামানত লাগবে ৫০০০ টাকা। সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী হতে জামানত লাগবে ১০০০ টাকা। এছাড়া চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধিত কোনো রাজনৈতিক দলের প্রার্থী হতে হলে তাকে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দলীয় প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে রিটার্নিং অফিসারের কাছে। তবে সংশ্লিষ্ট ইউপির ভোটার এবং প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা থাকলেই আগ্রহীরা চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে পারবেন। 

নির্বাচনী আইন অনুযায়ী- রাজনৈতিক দলের চেয়ারম্যান প্রার্থীর ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দলের সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক বা সমপর্যায়ের পদাধিকারী বা তাদের কাছ থেকে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির স্বাক্ষরিত একটি প্রত্যয়নপত্র থাকতে হবে। তবে কোনো রাজনৈতিক দল কোনো ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে একাধিক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিতে পারবে না। একাধিক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিলে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদে দলের প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হবে।

ইসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রার্থির প্রস্তাবক ও সমর্থক হতে হলে সংশ্লিষ্ট ইউপি, ওয়ার্ডের ভোটার হতে হবে। তবে কোনো ভোটার প্রস্তাবকারী হিসেবে অথবা সমর্থনকারী হিসেবে চেয়ারম্যান অথবা সংরক্ষিত আসনের সদস্য বা সাধারণ আসনের সদস্য পদে নির্বাচনের উদ্দেশ্যে সংশ্লিষ্ট পদে একটির অধিক মনোনয়নপত্রে তার নাম ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি কোনো ভোটার একই পদে একাধিক মনোনয়নপত্রে তার নাম ব্যবহার করেন, তা হলে এমন ধরনের সব মনোনয়নপত্র বাতিল হবে। এ নির্বাচন স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা প্রতিপালন করতে হবে সব প্রার্থীকে। ইসি জানিয়েছে, চেয়ারম্যান নির্বাচনের জন্য ফরম ‘ক’, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচনের জন্য ফরম ‘ক-১’ এবং সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচনের জন্য ফরম ‘ক-২’ অনুসারে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে হবে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কমপক্ষে ২ সেট মনোনয়নপত্র দাখিল করতে হবে। মনোনয়নপত্র প্রস্তাবকারী এবং সমর্থনকারী কর্তৃক স্বাক্ষরিত হতে হবে এবং মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জামানতের টাকা জমাদানের প্রমাণ হিসেবে রিটার্নিং অফিসারের অনুকূলে ব্যাংক ড্রাফট অথবা ট্রেজারি চালান যা পে-অর্ডার জমা দিতে হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর