শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ মার্চ, ২০২১ ২৩:৫৯

যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যার খেসারত ২৭ মিলিয়ন ডলার

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

ঘাড়ে হাঁটু চাপায় জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার খেসারত হিসেবে ২৭ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে মিনিয়াপলিস সিটি প্রশাসনকে। কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান ফ্লয়েডকে (৪৬) গত বছর করোনার লকডাউনের মধ্যে অর্থাৎ ২৫ মে প্রকাশ্যে নিষ্ঠুরভাবে হত্যার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্রের সীমানা পেড়িয়ে গোটাবিশ্বে। শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসার ডেরেক চৌভিনের এহেন আচরণে ক্ষুব্ধ আমেরিকানরা ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ ব্যানারে কয়েক মাসব্যাপী লাগাতার আন্দোলন করেছেন। একপর্যায়ে ডেরেক-কে গ্রেফতারের পরও আন্দোলনের গতি কমেনি। দাবি উঠেছিল পুলিশি আচরণের সংস্কারসাধনের। সে অনুযায়ী কংগ্রেসে একটি বিল পাস হয়েছে।

গত ১২ মার্চ মিনেসোটা স্টেটের মিনিয়াপলিস সিটি কাউন্সিলে যখন এই সমঝোতার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয় তখন ওই ঘাতকের বিচারের জন্য জুরিবোর্ড নির্বাচিত করা হচ্ছিল মাইলখানেক দূরের আদালতে, যেখানে বসেছিলেন ঘাতক ডেরেক (৪৪)। ডেরেকের বিরুদ্ধে সেকেন্ড ডিগ্রি মার্ডার, থার্ড ডিগ্রি মার্ডার এবং সেকেন্ড ডিগ্রি নরহত্যার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সবকটি প্রমাণিত হলে তার সর্বোচ্চ ২৫ বছরের কারাদন্ড হতে পারে।

ফ্লয়েডের স্বজনের সঙ্গে সিটি প্রশাসনের এই সমঝোতার তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন মিনিয়াপলিস সিটির মেয়র জ্যাকব ফ্রে। পুলিশি বর্বরতায় এর আগেও সমঝোতা হয়েছে বিভিন্ন স্থানে। তবে ডলারের পরিমাণ এটি সর্বোচ্চ। ফ্লয়েডের ভাই রোডনি ফ্লয়েড এ প্রসঙ্গে বলেন, যে ধরনের আচরণ করা হয়েছে তার খেসারত বড় ধরনের হওয়া উচিত, ভবিষ্যতে কেউ যাতে এমন ঔদ্ধত্য দেখানোর সাহস না পায়। আমরা সবসময় আশা করছি, বর্ণবিদ্বেষের মনোভাব যেন পুলিশি আচরণে না থাকে। এটি কারোরই কাম্য নয়। সব অঞ্চলেই কোনো না কোনোভাবে কিছু মানুষ সংখ্যালঘু, তাই বলে কি তারা নিগৃহীত হবেন? আশা করছি জর্জ ফ্লয়েড হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে মানবতাবোধ জাগ্রত রাখার স্বার্থে।

এর আগে গত সেপ্টেম্বরে কেন্টাকি স্টেটের লুইসভিলে পুলিশ কর্তৃক আরেক কৃষ্ণাঙ্গকে হত্যার খেসারত হিসেবে ১২ মিলিয়ন ডলার দিতে হয়েছে। কৃষ্ণাঙ্গ নারী ব্রিয়োনা টেইলর্সকে গত বছর মার্চে নিজ অ্যাপার্টমেন্টে গুলি করে হত্যা করেছিল সেখানকার পুলিশ। ২০১৭ সালে মিনিয়াপলিসের কৃষ্ণাঙ্গ পুলিশ অফিসার মোহাম্মদ নূর কর্তৃক শ্বেতাঙ্গ জাস্টিন রাসজেকি-কে গুলি করে হত্যার খেসারত হিসেবে ২০ মিলিয়ন ডলার দিতে হয়েছে। এ সমঝোতা হয় ২০১৯ সালে।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর