শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুন, ২০২১ ২৩:৩৭

প্রতারণার ফাঁদে ফেলে ব্যবসায়ীদের ৫০ কোটি টাকা আত্মসাৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

প্রতারণার ফাঁদে ফেলে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ৫০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মশিউর রহমান খান ওরফে বাবু নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। মঙ্গলবার রাজধানীর মহাখালী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

গতকাল দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান সংস্থাটির অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার খালিদুল  হক হাওলাদার, মোহাম্মদ সাইদুর রহমান খান, সিআইডির মিডিয়া উইংয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আজাদ রহমান। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, মশিউর রহমান সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের অন্যতম হোতা। দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণার মাধ্যমে ৫০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন মশিউর রহমান। তার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত ৯২টি মামলা থাকার তথ্য পেয়েছে পুলিশ।  অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক বলেন, মশিউর রহমানের বাড়ি গোপালগঞ্জ। গুগলসহ অনলাইনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে মশিউর রহমানের সহযোগীরা। পরে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য চাল, ডাল, তেল, লবণসহ বিবিধ পণ্য সরবরাহকারীদের সঙ্গে তার সহযোগীরা যোগাযোগ করেন। সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের সদস্যদের পেশাদারি আচরণে তাদের অপরাধমূলক কর্মকান্ড ধরতে পারেন না ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা। যে কোনো পণ্য কেনার পর তার ১০ থেকে ৩০ শতাংশ মূল্য পরিশোধ করতেন মশিউর রহমান। বাকি ৭০ শতাংশ মূল্য চেকের মাধ্যমে পরিশোধ করতেন। পরে ব্যবসায়ীরা ব্যাংকে গিয়ে জানতে পারেন, মশিউর রহমান যে চেক দিয়েছেন, সেই হিসাবে পর্যাপ্ত অর্থ নেই। এরপর দিনের পর দিন টাকা না দিয়ে নানাভাবে হয়রানি ও প্রতারিত করেন মশিউর রহমান। শেখ ওমর ফারুক আরও বলেন, মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত তাদের কাছে ১০০ জনের মতো ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী অভিযোগ করেছেন। দিন দিন এই অভিযোগকারীর সংখ্যা বাড়ছে। সিআইডি কার্যালয়ে প্রতারিত শতাধিক ব্যবসায়ী আজ (বুধবার) হাজির ছিলেন। মশিউর রহমানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা।