সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা
রেশন নিয়ে নয়াপাড়া ক্যাম্পে হাঙ্গামা

রোহিঙ্গাদের হামলায় আহত এপিবিএনের ১২ সদস্য

কক্সবাজার প্রতিনিধি

টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে নতুন এবং পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে রেশনিং কার্ড বিতরণকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার সময় রোহিঙ্গাদের হামলায় ১২ জন এপিবিএন সদস্য আহত হয়েছেন।

জানা গেছে, গতকাল সকাল থেকে রোহিঙ্গা নারীদের মধ্যে দফায় দফায় উত্তেজনা ও সংঘর্ষ থামাতে গেলে             পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটে। একপর্যায়ে দুপুরে রোহিঙ্গারা এপিবিএন সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ ৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্যাম্পে কর্মরত ১৬ এপিবিএন এর অধিনায়ক পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম জানান, গতকাল ভোর থেকে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে ফুড কার্ড ইস্যুকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা নারীরা ক্যাম্পের বিভিন্ন স্থানে জড়ো হতে থাকে। এ সময় এপিবিএন সদস্যরা উচ্ছৃঙ্খল রোহিঙ্গা নারীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। রোহিঙ্গা নারীরা এতে শান্ত না হয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন স্পটে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে। তারা এক পর্যায়ে সংঘবদ্ধ হয়ে অতর্কিতভাবে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে পুলিশের অস্ত্র টানাহেঁচড়া শুরু করে। তারা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য ৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। তখন হামলাকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। ইটপাটকেলের আঘাতে এপিবিএনের ১২ জন সদস্য আহত হয়েছেন। পরে ক্যাম্পের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ শামছুদ্দৌজা জানান, ‘রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভের পেছনে একটি চক্র উসকানি দিয়েছে। পুরাতন রোহিঙ্গারা দুষ্ট, তাদের ছোট একটা গ্রুপও আছে। তারাই পেছন থেকে ইন্ধন জোগায়।’ তিনি জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন শক্ত অবস্থানে রয়েছে।