শিরোনাম
মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২ ০০:০০ টা

৮টার পর দোকান বন্ধ না করলে ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে গতকাল রাত ৮টার মধ্যে সারা দেশে দোকান, বিপণিবিতান, শপিং মল বন্ধের বিষয়ে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সবাই যেন ৮টার মধ্যেই দোকান বন্ধ করে দেন সে বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে দোকান ও শপিং মল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এখন থেকে শপিং মল, দোকানপাট বন্ধের বিষয়গুলো মনিটরিং করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। সার্বিক বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে সরকার বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬-এর ১১৪ ধারা কঠোরভাবে প্রতিপালনের উদ্যোগ নিয়েছে। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি, এফবিসিসিআইসহ সব ব্যবসায়ী সংগঠন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার প্রতি সম্মান জানিয়ে সরকারের এ উদ্যোগ সর্বসম্মতিক্রমে মেনে নিয়েছে। রাজধানীসহ সারা দেশে বিভাগীয় শহর ছাড়াও জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে গতকাল রাত ৮টার মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয় বিভিন্ন দোকান ও শপিং মল। অপরাধী নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা এসব বিষয় প্রতিপালন করতে সর্বাত্মক কাজ করে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে সরকারি নির্দেশনা তারা পেয়েছেন এবং সে অনুযায়ী কর্তৃপক্ষকে সচেতন করার চেষ্টা করছেন। কর্মকর্তারা বলছেন, আগেও রাত ৮টার মধ্যে শপিং মল ও বিভিন্ন দোকান বন্ধের নির্দেশনা ছিল, কিন্তু বন্ধ করতে করতে ৯টা-সাড়ে ৯টা বেজে যেত। কিন্তু এখন থেকে রাত ৮টার মধ্যেই দোকান ও শপিং মল বন্ধ করে দিতে হবে। আমরা প্রাথমিকভাবে দোকান মালিক ও শপিং মল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি, তাদের বোঝানো হচ্ছে। সিভিল প্রশাসন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে এসব বিষয় মনিটরিং করা হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বলছে, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, অপরাধী ধরতে অভিযান, বিভিন্ন আন্দোলন দমন এসব নিয়েই তাদের প্রতিনিয়ত ব্যস্ত থাকতে হয়। এ ছাড়া সরকারি বিভিন্ন নির্দেশনা এলে তা বাস্তবায়নে তারা কাজ করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় রাত ৮টার মধ্যে সারা দেশে দোকান ও শপিং মল বন্ধের নির্দেশনার আলোকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। তাদের সচেতন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তারা যেন সরকারি নির্দেশনা মেনে নির্ধারিত সময়ে দোকান ও শপিং মল বন্ধ করে দেন, সে অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে। বাড়তি দায়িত্ব হলেও সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী যে কোনো ধরনের কাজ করে যাচ্ছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) উত্তরা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার তাপস কুমার বলেন, ‘সব থানার বিট অফিসারকে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট শপিং মল এবং দোকানপাটের ব্যবসায়ী ও মালিকদের সঙ্গে কথা বলতে বলা হচ্ছে। তারা যেন রাত ৮টার মধ্যে বন্ধ করে দেন সে বিষয়গুলো আমরা মনিটরিং করছি।’

ডিএমপি গুলশান বিভাগের গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান বলেন, ‘রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট ও শপিং মল বন্ধের নির্দেশনাটি আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানাচ্ছি। ৮টার পর শপিং মল যেন খোলা না থাকে, সে অনুযায়ী কাজ করছি। এসব বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’

 

সর্বশেষ খবর