শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:৩৯
আপডেট : ২৭ নভেম্বর, ২০২০ ২০:১৯
প্রিন্ট করুন printer

বেকারদের প্রাণিসম্পদ খাতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে: শ ম রেজাউল করিম

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

বেকারদের প্রাণিসম্পদ খাতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে: শ ম রেজাউল করিম

করোনাকালে যারা বিদেশ থেকে ফিরে এসেছেন কিংবা দেশে চাকরি হারিয়ে বেকার হয়ে পড়েছেন তাদের প্রাণিসম্পদ খাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা হবে বলে জানিয়েছেন দিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

আজ শুক্রবার খুলনার নূর নগরে নবনির্মিত বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময়ে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তাঁর সেই স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতধরে বাস্তবায়িত হচ্ছে। বিশ্বের বুকে অর্থনৈতিক উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারীর ছোবলে অনেকে কর্মসংস্থান হারিয়েছে। 

তাদের জন্য নানামুখী প্রণোদনা প্যাকেজের মাধ্যমে প্রাণিসম্পদ খাতে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করা হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে ছয় লাখ ৯৬ হাজার কৃষক ও উদ্যোক্তার মাঝে নয়শত কোটি টাকা বিতরণ করা হবে। পরবর্তীতে আরও চার হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা হিসেবে দেওয়া হবে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, মৎস্য অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক কাজী শামস আফরোজ, প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইন্সটিটিউটের মহা-পরিচালক ড. নথুরাম সরকার, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, উপ-পুলিশ কমিশনার এসএম শাকিলউজ্জামান, প্রকল্প পরিচালক ডা. দিলীপ কুমার ঘোষ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খামারী শেখ মোজাম্মেল হক। 

উল্লেখ্য, খুলনা বিভাগে নির্মিত এই ভবনটি বাংলাদেশের প্রথম বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ ভবন। ভবনটি দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত হয়েছে যাতে ব্যয় হয়েছে ১১ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে শুরু হয়ে ২০২০ সালের জুন মাসে ছয়তলা এই ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ হয়। 

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৩:২২
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না সরকার: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না সরকার: কাদের
সংগৃহীত ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করবে না। চট্টগ্রামের জনগণ যাকে খুশি তাকেই ভোট দিবে, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে স্বাধীন ও কর্তৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনে কমিশনকে সরকার সম্পূর্ণ সহযোগিতা দিবে। 

ওবায়দুল কাদের আজ সোমবার সকালে তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন। 

শেখ হাসিনা সরকার ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় অবিরাম পরিশ্রম করছেন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, এদেশের রাজনীতিতে সততার অনন্য নজির বঙ্গবন্ধু পরিবার। এ পরিবার থেকে সবাইকে শিক্ষা নিতে হবে সততা ও সুমহান ত্যাগের।

ওবায়দুল কাদের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের ক্ষমতার দাপট না দেখিয়ে জনমানুষের সেবায় নিবেদিতপ্রাণ হওয়ার আহবান জানান। 

ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভোগের লিপ্সা পরিহার করে ত্যাগের মহিমায় রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে জীবনকে সাজাতে হবে।

দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের অবিরাম লড়াই চালিয়ে যেতে হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। 

অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন এবং গণতন্ত্রের শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়াই করার পাশাপাশি নিজেদের পরিশুদ্ধ করার লড়াইও এগিয়ে নিতে হবে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আগামীর রাজনীতি হবে শুদ্ধতার, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর বিজ্ঞানসম্মত। যারা দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়, তাদের অপচেষ্টা ও ষড়যন্ত্র রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে হবে। আর সে লক্ষ্যে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি অভিযোগ করছে, তাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সরকার নাকি বাধা দিচ্ছে। বিএনপির মুখে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের কথা ভূতের মুখে রাম রাম ধ্বনির মতো। আন্দোলনের নামে সহিংসতা ছড়ানো, মিছিলের নামে জনগণের সম্পদ পুড়িয়ে দেওয়া- কোন শান্তিপূর্ণ আন্দোলন হতে পারে না। যারা মানুষ হত্যার রাজনীতি করে, সন্ত্রাস আর দুর্নীতির পৃষ্ঠপোষকতা করে, তারা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করবে, এদেশের মানুষ তা বিশ্বাস করে না। বিএনপির কর্মসূচি দেখলে সরকার নয়, জনগণই ভয়ে আতঙ্কিত থাকে।

তিনি বিএনপিকে 'প্রতিহিংসার রাজনীতির জনক' বলেও উল্লেখ করেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৩:২২
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৩:২৮
প্রিন্ট করুন printer

বিএনপি বিমানের দুর্নীতির জন্মদাতা: প্রতিমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি বিমানের দুর্নীতির জন্মদাতা: প্রতিমন্ত্রী
ফাইল ছবি

বিএনপি বিমানের দুর্নীতির জন্মদাতা মন্তব্য করে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেছেন, বিমানের দুর্নীতি বিএনপির আমলে তৈরি হয়েছে।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে জাতীয় সংসদে এক আলোচনায় বিরোধী দলের সদস্যদের বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ মন্তব্য প্রতিমন্ত্রী। অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এসময় প্রতিমন্ত্রী মাহাবুব আলী বলেন, বিমানের অব্যবস্থাপনা বিএনপির আমলে তৈরি হয়েছিল। বিএনপির আমলে তারা বিমানকে লুটপাটের আখড়া বানিয়েছিল। হাওয়া ভবন তৈরি করে সর্বত্র দুর্নীতির লুটপাট চালানো হয়েছে। এখন বিমানে দুর্নীতি হয় না বলবো না, সামান্য হয়। আমরা তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিচ্ছি। বিএনপি বিমানের দুর্নীতির জন্মদাতা।

সংসদ সদস্যদের বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে বেসরকারি বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, বিমানের টিকিট পাওয়া যায় না এ অবস্থা ছিল না এটা বলবো না। এর বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। টিকিটের ব্যবস্থা করেছি। এখন কেউ বলতে পারবে না বিমানে সিট আছে টিকিট নেই। ট্রাভেল এসেন্সিগুলোও বর্তমানে বিভিন্ন সংকটের মধ্যে আছে। এসব ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত ছিল তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বিমানবন্দরে লাগেজ আসা দেরি হওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ফাস্ট লাগেজ ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মধ্যে এসে যায়। লাস্ট লাগেজ আসে ৪৫ মিনিটের মধ্যে। এখন এ সমস্যাগুলো আর নেই।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:০১
প্রিন্ট করুন printer

দেশে দারিদ্র্যের হার ২২-২৩ শতাংশের বেশি নয় : পরিকল্পনামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

দেশে দারিদ্র্যের হার ২২-২৩ শতাংশের বেশি নয় : পরিকল্পনামন্ত্রী
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান (ফাইল ছবি)

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, বর্তমানে দেশে দারিদ্রের হার ২২-২৩ শতাংশের বেশি নয়। আজ রবিবার রাজধানীর এফডিসিতে ‘শিল্প খাতে করোনার অভিঘাত মোকাবিলায় সরকারি উদ্যোগ’ নিয়ে ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।  

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। এসময় মন্ত্রী সম্প্রতি একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত ‘দেশে দারিদ্রের হার ৪১ শতাংশ’ খবরটি নিয়েও বেশি করে খোঁজখবর নেওয়ার তাগিদ দেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, করোনার অভিঘাত মোকাবিলায় সরকারি প্রণোদনার প্রবাহ যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রান্তিক পর্যায় পর্যন্ত সরকার ঘোষিত প্রণোদনা পৌঁছায়নি। তবে করোনাকালীন সময়ে সামাজিক নিরাপত্তা খাতে সরকার তার কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সমর্থ হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১৮:০০
প্রিন্ট করুন printer

বাংলাদেশের চেয়ে আমেরিকাতে ধর্ষণের ঘটনা বেশি ঘটে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশের চেয়ে আমেরিকাতে ধর্ষণের ঘটনা বেশি ঘটে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
ড. এ কে মোমেন (ফাইল ছবি)

আমেরিকাতে বাংলাদেশের চেয়ে ধর্ষণের ঘটনা বেশি ঘটলেও খবরের শিরোনাম হয় বাংলাদেশ বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে মোমেন। আজ রবিবার বিকালে আমেরিকার চেম্বার অ্যামচাম আয়োজিত এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি পণ্য ও সেবা রপ্তানির ক্ষেত্রে অ্যামচাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। বাংলাদেশ সব সামাজিক সূচকে এগিয়ে চলেছে। বর্তমান সরকার গৃহ নিয়ে গৃহহীনদের পাশে দাঁড়িয়েছে। ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দিতে সরকার কাজ করছে ও পৌঁছে দিচ্ছে।

সাংবাদিকতা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকতা হতে হবে স্বচ্ছ ও অনুসন্ধানমূলক। নিজেরা নিজেরা গবেষণা করে সংবাদ প্রকাশ না করাই ভালো। সাংবাদিকরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে। এবার করোনা মহামারিতেও মানুষকে তথ্য-উপাত্ত দিয়ে তারা সচেতন করেছে ও সংকটে পাশে থেকেছে। সাংবাদিকদের সমাজের স্বার্থ মাথায় রেখে কাজ করারও আহ্বান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:৪১
প্রিন্ট করুন printer

জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
জাহিদ মালেক (ফাইল ছবি)

জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, যে চাইবে তাকেই ভ্যাকসিন দেয়া হবে। ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের সবচেয়ে আগে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আজ রবিবার সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ভারত থেকে কেনা ৫০ লাখ করোনাভাইরাসের টিকা আগামীকাল সোমবারই দেশে আসছে। ২৭ জানুয়ারি রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে একজন নার্সকে টিকা দেয়ার মাধ্যমে ভ্যাকসিন কর্মসূচির উদ্বোধন করা হবে। এই কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, করোন পরীক্ষায় অ্যান্টিবডি টেস্ট করার অনুমোদন দিয়েছে সরকার। অ্যান্টিবডি টেস্টের কিট বেসরকারিভাবে আমদানি করা যাবে। বাংলাদেশ নিয়ে আসা ভ্যাকসিন অন্যান্য ভ্যাকসিন তুলনায় কম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

ফাইজারের ভ্যাকসিনের বিষয়ে এখনো কোনো অনুমোদন দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, একটা পর্যায়ে গেলে বেসরকারিভাবে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে কিনা সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এই বিভাগের আরও খবর