২১ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৭:৪২

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ছিল অলিখিত: ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

গাজীপুর প্রতিনিধি

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ছিল অলিখিত: ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, আমরা এ বছর মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ পালনের পাশাপাশি বাংলাদেশ উন্নত দেশের মর্যাদা পাবার যে গৌরব তাও আমরা অর্জন করেছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এক ডাকে, এক আহবানে এবং তাঁর ইশারায় জীবনের মায়া ত্যাগ করে বীর মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। তাদের আত্মত্যাগের বিনিময়েই আমরা বিজয় অর্জন করেছি, স্বাধীনতা পেয়েছি। 

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ছিল অলিখিত। তবে সেটা ছিল মনের গভীর থেকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাষণ। সে ভাষণে তিনি মুক্তিযুদ্ধের দিক নির্দেশনা দিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু আমাদের দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের প্রতিটিতেই অংশগ্রহণ করেছেন। বঙ্গবন্ধু দেশ পুনর্গঠন করেছেন, আর তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হয়েছে। 

প্রতিমন্ত্রী মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

জেলা শহরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ। এতে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি শামসুন্নাহার ভূইয়া, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আমিনুল ইসলাম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো: আজমত উল্লা খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার মিয়া, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিন বুদ্দিন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো: আতাউল্যাহ মন্ডল, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান কাজল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নগরীর আট শতাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর