Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৯

৩০ বছরের পুঞ্জীভূত মামলা জট কমাতে কাজ করছি : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩০ বছরের পুঞ্জীভূত মামলা জট কমাতে কাজ করছি : আইনমন্ত্রী

বিগত ৩০ বছরের পুঞ্জীভূত ৩৪ লাখ মামলার জট কমাতে আইন মন্ত্রণালয় কাজ করছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক। তিনি বলেন, এটা যখন এক লাখ, দুই লাখ ছিল, তখন যদি কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হতো তাহলে হয়তো এখন ৩৪ লাখ মামলা জটের দায়ভার নিয়ে কাজ করতে হতো না।

গতকাল রাজধানীর বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে জেলা জজদের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক বিচারপতি মুসা খালেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক প্রমুখ।

আইনমন্ত্রী বলেন, গত ৩০ বছরের পুঞ্জীভূত মামলার জট নিয়ে এখন আপনারা লড়াই করছেন। প্রতিনিয়ত শুনতে হচ্ছে ৩৪ লাখ মামলার জটের কথা। তারপরও বিচারপ্রার্থী জনগণকে ন্যায়বিচার দিতে হবে। একই সঙ্গে মামলার জটও কমাতে হবে। সেই ক্ষেত্রে আমরা যে পদক্ষেপ নিয়েছি তার মধ্যে একটা হলো মামলা তাড়াতাড়ি শেষ করার ব্যবস্থা। এর পাশাপাশি দ্রুত কীভাবে মামলা শেষ করা যায় তার জন্য বিকল্প পথও খুঁজছি। সিভিল মামলা বেগুন খেতের সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেন, একবার লাগালে দীর্ঘসময় ধরে ফল আসতে থাকবে। আমরা এ সংস্কৃতির পরিবর্তন করতে চাই। জনগণকে বিচার দিতে হবে। বিচার দিতে যদি আমরা দেরি করি তাহলে সেটা হবে বিচার বিভাগের ব্যর্থতা। আনিসুল হক বলেন, আমরা আইনের শাসনকে কোনোভাবে প্রভাবিত করতে চাই না। এ জন্য আমাদের আইনের শাসনের মধ্যে থেকেই এ সমস্যার সমাধান করতে হবে।

নিম্ন আদালতের বিচারকদের জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আপনারা জেলা জজ। আপনারা জনগণকে বলবেন, যে মামলাগুলো সহজে নিষ্পত্তিযোগ্য সেগুলো যেন কোর্টে না এসে বাইরে তারা সমাধান করে ফেলে। এভাবে যদি তাদের উৎসাহিত করা যায়, তাহলে মনে হয় মামলার সংখ্যা অনেক কমে যাবে।

 


আপনার মন্তব্য