শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০১:৫৮

ঢাবিতে ছাত্রদল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেহেদী হাসান নামে এক ছাত্রদল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে বিজয় একাত্তর হল শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু ইউনুসের বিরুদ্ধে। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মেহেদী হাসান বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী এবং শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের অনাবাসিক ছাত্র। তিনি মারধরের বিচার চেয়ে প্রক্টর অফিসে মৌখিকভাবে জানিয়েছেন।

অভিযুক্ত আবু ইউনুস ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনের অনুসারী বলে জানা গেছে।

মেহেদী অভিযোগ করেন, গতকাল তার মিডটার্ম পরীক্ষা থাকায় দুপুরের দিকে তিনি ক্যাম্পাসে আসেন। বিভাগের দিকে যাওয়ার সময় ডাকসুর সামনে থেকে তাকে ডেকে নেন আবু ইউনুস। পরে আমতলার দিকে ধরে নিয়ে যান তাকে। সেখানে আগে থেকে অপেক্ষমাণ ১৫-২০ জন ছাত্রলীগ কর্মী এসে তাকে ঘিরে ধরেন। এ সময় তাকে ছাত্রদলের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন আবু ইউনুস। একপর্যায়ে তাকে ৮-১০ জন মিলে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি ও মাটিতে ফেলে লাথি মারতে থাকেন। মারধরের পর তাকে চলে যেতে বলেন মারধরকারীরা। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মানিব্যাগও ছিনিয়ে নেওয়া হয়। এতে তার কিছু টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজও ছিল বলে জানান তিনি।

তবে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করে আবু ইউনুস জানান, গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় তাকে মধুর ক্যান্টিনে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কোনো রকম মারধর করা হয়নি। মানিব্যাগ নেওয়ার ঘটনাও মিথ্যা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর একেএম গোলাম রব্বানী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, আমি বিষয়টি সম্পর্কে শুনেছি। বিভিন্ন উৎস থেকে খবরও পেয়েছি। র্িলখিত অভিযোগ আসা সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেব।


আপনার মন্তব্য