শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৮ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জুন, ২০২১ ২৩:৪৩

সদকা ও জাকাতের অর্থে জঙ্গিবাদ গ্রেফতার ৩ জঙ্গি

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপ। তারা হলেন- সাইয়েদ তাইমিয়া ইবরাহীম ওরফে আনোয়ার, মারুফ চৌধুরী মিশু ওরফে ফারহান ও মো. ফরজুল মোরসালিন। শনিবার রাতে রাজধানীর রামপুরা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গতকাল ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে সিটিটিসি প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, আনসার আল ইসলামের সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত করার লক্ষ্যে গ্রেফতার তিনজন অনলাইন ও অফলাইন প্ল্যাটফরমে প্রচার চালিয়ে নতুন সদস্য ও অর্থ সংগ্রহ করছিল। ওই জঙ্গি দলের সদস্যরা জনকল্যাণমূলক কাজ বা চ্যারিটির নামে দেশ ও বিদেশ থেকে সদকা ও জাকাতের অর্থ সংগ্রহ করে জঙ্গিবাদের কাজে ব্যবহার করত।

 বর্তমানে তারা তিন থেকে পাঁচজনের গোপন সেল বা মডিউল করে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। এসব সেল আলাদাভাবে কর্মী রিক্রুট করে। ফলে ভিন্ন ভিন্ন সেল বা মডিউলের সদস্যরা কেউ কাউকে চিনতে পারে না। বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করে তারা নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করত।

তিনি আরও বলেন, আনোয়ার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ শেষ করে ২০১৫ সালে আনসার আল ইসলামে যোগ দেয়। ২০১৬ সালে সে একটি মডিউলের দায়িত্ব পায়। ফারহান আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ থেকে বিবিএ করে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি নেয়। ২০১৫ সালে সে আনসার আল ইসলামে যোগ দেয়।

ফারহান সংগঠনের নির্দেশে বাংলাদেশে শরণার্থী হিসেবে আসা রোহিঙ্গাদের মানবিক সাহায্যের আড়ালে উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচারের জন্য ২০১৭ সালে তিন মাস বাংলাদেশ মিয়ানমার সীমান্তে অবস্থান করে। ফারহান কোনো রোহিঙ্গাকে নিজেদের সংগঠনে জড়িয়েছে কি না জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান বলেন, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

গ্রেফতার মোরসালিন ঢাকা আলিয়া মাদরাসা থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে গ্র্যাজুয়েশন করে। ফ্রি-ল্যান্সার হিসেবে সে কাজ করত। ২০১৬ সালে আনসার আল ইসলামে যোগ দেয়। গ্রেফতার তিনজনের বিরুদ্ধে রামপুরা থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের ডিসি আবদুল মান্নান বলেন, গতকাল গ্রেফতার তিনজনকে আদালতে পাঠিয়ে ১০ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করে।

এই বিভাগের আরও খবর