শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ জুলাই, ২০২১ ২৩:২১

অভিবাসী কর্মীদের টিকাদান প্রক্রিয়া সহজ করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

করোনার টিকাদান কর্মসূচিতে সরকার অভিবাসী কর্মীদের অগ্রাধিকার দিলেও টিকার জন্য নিবন্ধন করতে গিয়ে নানা প্রতিকূলতার সম্মুখীন হচ্ছেন অভিবাসী বা বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীরা। অনেকেই নিবন্ধনের ৭২ ঘণ্টা পরও মোবাইলে এসএমএস পাচ্ছেন না। অনলাইনে তথ্য পূরণে ভুল হয়ে গেলে তা সংশোধনের সুযোগ নেই। ফলে পুনরায় টাকা দিয়ে নতুন করে নিবন্ধিত হতে হচ্ছে। এ ছাড়া টিকার জন্য ‘সুরক্ষা’ অ্যাপে নিবন্ধনের আগে ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপে নিবন্ধন করতে হচ্ছে, সে সম্পর্কে পর্যাপ্ত দিকনির্দেশনা না থাকায় অনেকেই নিবন্ধনে ব্যর্থ হচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে দ্রুততম সময়ে বিদেশ গমনেচ্ছু অনেকেই টিকা নিতে না পারায় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।

গতকাল বাংলাদেশ সিভিল সোসাইটি ফর মাইগ্রেন্টস (বিসিএসএম) আয়োজিত এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এসব বিষয় তুলে ধরা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বিসিএসএমের চেয়ার ড. সি আর আবরার বলেন, টিকার নিবন্ধন করতে অভিবাসীরা যেসব সমস্যায় পড়ছেন আশা করি সরকার বিষয়গুলো গুরুত্বের সঙ্গে নেবে। এ ছাড়া ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপে যারা তথ্য দিচ্ছেন, তাদের তথ্য যেন অন্য কোথাও ব্যবহার না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে।

স্বাগত বক্তব্য দেন বিসিএসএমের কো-চেয়ার এবং ওয়ারবে ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ সাইফুল হক। মডারেটর হিসেবে সংবাদ সম্মেলনের বিষয়বস্তু উপস্থাপন করেন রামরুর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ার ড. তাসনিম সিদ্দিকী। অতিথি ছিলেন পার্লামেন্টারিয়ান ককাস ফর মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের সদস্য আহসান আদেলুর রহমানসহ বিসিএসএমের সব সদস্য সংগঠনের প্রতিনিধি।

এই বিভাগের আরও খবর