শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ নভেম্বর, ২০১৭ ২৩:১৮

বিশ্বকাপে ৩২ দল

নতুন চমক

গত বছরই উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ফুটবল দুনিয়াকে চমকে দিয়েছিল ৩ লাখ ৩২ হাজার মানুষের দেশ আইসল্যান্ড। গ্রুপ পর্বে পর্তুগাল, অস্ট্রিয়া ও হাঙ্গেরির মতো দলের সঙ্গে লড়াই করে তারা পৌঁছে যায় নকআউট পর্বে। সেখানে সবাইকে চমকে দিয়ে হারিয়ে দেয় ইংল্যান্ডকে (২-১)। কোয়ার্টার ফাইনালে তাদের দেখা হয় স্বাগতিক ফ্রান্সের সঙ্গে। ফরাসিদেরও কাঁপিয়ে দিয়েছিল আইসল্যান্ড। তবে পগবা-গ্রিজম্যানদের দুর্দান্ত ফ্রান্সকে টপকাতে পারেনি তারা। অবশ্য কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেই নিজেদের দুর্দান্ত দাপটের কথা জানান দিয়েছিল আইসল্যান্ড। রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে সরাসরি চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করে আরও একবার ফুটবল দুনিয়ায় হুঙ্কার ছাড়ল তারা। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের মতোই কী বিশ্বকাপেও রূপকথার জন্ম দেবে আইসল্যান্ড!

পানামার বিশ্বকাপ ইতিহাসও ধবধবে সাদা ছিল এতদিন। এবার বর্ণিল রঙের ছটায় তা রঙিন হয়ে উঠল। অবশ্য কয়েক বছর ধরেই কনকাকাফ অঞ্চলে বেশ দাপট দেখিয়ে চলছিল পানামা। ২০১৩ সালে তারা রানার্সআপ হয় কনকাকাফ গোল্ডকাপে। পরের বছর খেলে সেমিফাইনাল। এ বছর অবশ্য কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছিল। তবে বাছাই পর্বে দুর্দান্ত খেলেছে তারা। মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ড্র করেই নিজেদের শক্তিমত্তার জানান দিয়েছিল তারা। বাছাই                পর্বের শেষ ম্যাচে গত বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালিস্ট কোস্টারিকাকে হারিয়েই চূড়ান্ত                   পর্ব নিশ্চিত করে পানামা। অবশ্য এতে বড় ভূমিকা ছিল ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোরও। তারা যুক্তরাষ্ট্রকে শেষ ম্যাচে ২-১ গোলে হারিয়ে দেওয়াতেই সুযোগ পেয়েছে পানামা।


আপনার মন্তব্য