শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ মার্চ, ২০১৯ ২৩:০৩

সূর্যের দেখা মিলেছে কি

ওয়েলিংটন টেস্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সূর্যের দেখা মিলেছে কি

বেসিন রিজার্ভের আউট ফিল্ড এমনিতেই সবুজ। দূর থেকে দেখে মনে হয়, ক্যানভাসের উপর সবুজ কালির ছোপ। দুদিন ধরে টানা বৃষ্টিতে ঘাস আরও সবুজ রং ধারণ করেছে। পরশু শুরুর কথা ছিল ওয়েলিংটন টেস্ট। গতকাল দুদিন পেরিয়েছে। কিন্তু টস করতে পারেননি দুই অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও কেন উইলিয়ামসন। আবহাওয়া বলছে, আজ বৃষ্টি কমে আসবে। তাই তৃতীয় দিন মাঠে খেলা গড়ানোর সম্ভাবনা উজ্জ্বল। যদি মাঠে গড়ায় টেস্ট, তাহলে বাকি থাকবে তিনদিন। এই তিনদিনে কি টেস্টের ফল হবে? টাইগার কোচ স্টিভ রোডস জানিয়েছেন, টেস্টের ফল হতেই পারে। পরিসংখ্যান বলে, প্রথম দুদিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পরও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ইনিংস হারের রেকর্ডস রয়েছে টাইগারদের। বৃষ্টিতে প্রথম দুদিন ভেসে গেলেও স্বস্তিতে নেই মাহমুদুল্লাহরা। ২০০১ সালে হ্যামিল্টন টেস্টের প্রথম দুদিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পরও হেরেছিল ইনিংস ও ৫২ রানে। অবশ্য দেড় যুগের পথচলায় বাংলাদেশ এখন অনেক শক্ত প্রতিপক্ষ। তাই পরিসংখ্যানের পুনরাবৃত্তি নাও হতে পারে!

হ্যামিল্টনে তিন সেঞ্চুরির পরও ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিলেন মাহমুদুল্লাহরা। সেঞ্চুরি করেছিলেন তামিম ইকবাল, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও সৌম্য সরকার। হার এড়াতে দ্বিতীয় ইনিংসে জোর লড়াই করেছিল বাংলাদেশ। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাহমুদুল্লাহরা ওয়েলিংটন টেস্টের জন্য প্রস্তুতি নেয়। কিন্তু মাঠে নামতে পারেনি প্রথম দুদিন। প্রথমদিন বৃষ্টিতে ভেসেছিল পুরো মাঠ। গতকাল দ্বিতীয় দিন থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। তবে শেষ সেসনে বৃষ্টি হয়নি। তাই ম্যাচ রেফারি চাইলেই শেষ আধ ঘণ্টা খেলা হতে পারতো। কিন্তু ম্যাচ রেফারি ও আম্পায়ারদ্বয় খেলা শুরু করেননি। খেলা শুরু না করায় আম্পায়ারদের সাধুবাদ জানিয়েছেন টাইগার কোচ রোডস. ‘আমি মনে করি দ্বিতীয় দিন খেলা না হওয়ায় দুই দলের জন্যই ভালো হয়েছে। এমন পরিবেশে ৩০/৪০ মিনিট ব্যাটিং করা  যেকোনো দলের জন্যই কঠিন হতো।’ আজ তৃতীয় দিন নতুন উদ্যমে মাঠে নামবে দুই দল। আবহাওয়া যেমনই হোক, টস জিতলে ফিল্ডিং করার কথা বলেন টাইগার কোচ, ‘আশা করছি আমরা টসে জিতবো এবং শুরুতেই নিউজিল্যান্ডের কিছু উইকেট তুলে চাপে ফেলতে পারব। যদি তা না হয়, তাহলে দেখেশুনে ব্যাটিং করতে হবে।’ দুদিন ভেসে গেলেও ম্যাচে ফল সম্ভব বলেন রোডস, ‘খেয়াল করলে দেখবেন, ২/৩দিন খেলা হলেও ফল আসে। আমি মনে করি ম্যাচে এখনো ফল আসা সম্ভব। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে আবহাওয়ার উপর।’


আপনার মন্তব্য