Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জুন, ২০১৯ ২২:৫৫

বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের স্বর্গ

তামিমের চিন্তা, বড় একটা ইনিংস খেলে ছন্দে ফেরা

বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের স্বর্গ
নিজেকে ফিরে পেতে কঠোর অনুশীলন করছেন তামিম ইকবাল। কাল ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে টাইগাররা -সংগৃহীত

টনটন কাউন্টি গ্রাউন্ড হচ্ছে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপের  ভেন্যু! এখানে বিশ্বকাপ ছাড়া আর কোনো আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ হয়নি। এই বিশ্বকাপের আগে যে তিনটি ম্যাচ এখানে অনুষ্ঠিত হয়েছিল তার দুটি ১৯৯৯ বিশ্বকাপে এবং একটি ১৯৮৩ বিশ্বকাপে। এই বিশ্বকাপে আরও দুটি ম্যাচ হয়েছে। প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ড-আফগানিস্তান এবং দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া খেলেছে।

সমারসেট কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের এই হোম ভেন্যু হচ্ছে বামহাতি ব্যাটসম্যানদের স্বর্গ! এখন পর্যন্ত পাঁচটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে এখানে চারটি  সেঞ্চুরি হয়েছে। তার মধ্যে তিনটি সেঞ্চুরিই করেছেন তিন বামহাতি ব্যাটসম্যান। তারা হচ্ছেন ইংল্যান্ডের ডেভিড গয়ার, ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলি ও অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার।

৮৩-র বিশ্বকাপে এই মাঠে খেলা প্রথম বিশ্বকাপের ম্যাচে লঙ্কানদের বিরুদ্ধে ১২০ বলে ১৩০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। ১২ বাউন্ডারির সঙ্গে ছিল ৫টি ছক্কা। ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও ওপেনার সৌরভ গাঙ্গুলি তার ক্যারিয়ার সেরা ১৮৩ রানের ইনিংসটি  খেলেছিলেন এই মাঠেই। ১৫৮ বলে ১৭ বাউন্ডারির সঙ্গে ৭টি ছক্কা। আর অসি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার  তো কয়েকদিন আগেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে  খেলেছেন ১০৭ রানের ইনিংস।

এই ধারাবাহিকতায় এবার কি তবে তামিম ইকবালের সেঞ্চুরি হবে এই মাঠে? গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্ন শুনে স্মিত হাসলেন ড্যাসিং ওপেনার! তারপর বললেন, ‘আশা করি!’

বাংলাদেশের বড় দুশ্চিন্তার কারণ হচ্ছে ড্যাসিং ওপেনার তামিম ইকবালের অফ-ফর্ম। দলের সেরা ব্যাটসম্যান এখনো নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। তবে তিন ম্যাচেই শুরুটা খুব ভালোভাবে করেছিলেন তামিম। ওভালের দুই ম্যাচে ১৬ ও ২৪ এবং কার্ডিফে ১৯ রান করেছিলেন। কিন্তু ইনিংসটা বড় করতে পারেননি। নিজের সমস্যাটা নিজে খুঁজেও বের করেছেন ড্যাসিং ওপেনার, ‘আমি যদি আউট হয়ে যাই, সাধারণত শুরুতেই আউট হই, না হলে বড় ইনিংস খেলি। কিন্তু বিশ্বকাপে তিন ম্যাচেই উইকেটে সেট হওয়ার পরও আউট হয়েছি। যখন আমার ভালো করার কথা তখনই আউট হয়েছি। তিন ম্যাচের মধ্যে দুটিতেই উইকেট থ্রো করেছি।’ অকপটে নিজের সম্পর্কে গতকাল বলছিলেন তামিম। তবে এই কথার আড়ালে যেন রান করার তীব্র রান-ক্ষুধাও প্রকাশ পাচ্ছিল তা তো বলার অপেক্ষা রাখে না। ব্রিস্টলের ম্যাচের আগেও কঠোর অনুশীলন করেছেন তামিম। কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে গেছে। তবে টনটনে বড় ইনিংস খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন তামিম, ‘এখাকার উইকেট নাকি ব্যাটিং স্বর্গ! দেখা যাক।’

এখনো বাংলাদেশ দলের সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন  শেষ হয়ে যায়নি। তবে ঠিক কয়টা ম্যাচ জিতলে  শেষ চারে জায়গা করে নেওয়া যাবে সেটাও পরিষ্কার নয়। তবে বাংলাদেশ এখন তা নিয়ে ভাবছেও না। তামিম বলেন, ‘এ নিয়ে ৫ জুলাইয়ের আগে কিছু আর বলতে চাই না। এটাই জানি প্রতিটি ম্যাচেই আমাদেরকে জিততে হবে।’

আপাতত তামিমের চিন্তা, বড় একটা ইনিংস খেলে ছন্দে ফেরা। বামহাতি ব্যাটসম্যানদের এই স্বর্গে নিজের সামর্থ্যের চিহ্ন রেখে দেওয়া।


আপনার মন্তব্য