শনিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ টা

চট্টগ্রামকে হারিয়ে খুলনার প্রতিশোধ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

খুলনা টাইগার্সের প্রতিশোধের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব। ঢাকা পর্বে মেহেদি হাসান মিরাজের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের কাছে ২৫ রানে হেরেছিল মুশফিকের খুলনা। গতকাল জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে স্বাগতিক চট্টগ্রামকে ৬ উইকেটে হারিয়ে খুলনার প্রতিশোধ নেওয়ার নায়ক ছিলেন ব্যাট হাতে আন্দ্রে ফ্লেচার ও মুশফিকুর রহিম এবং বোলিংয়ে থিসারা পেরেরা। খুলনার এটা তৃতীয় ম্যাচে দ্বিতীয় জয় এবং চট্টগ্রামের চতুর্থ ম্যাচে দ্বিতীয় হার। এ ম্যাচে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হয়েছে এডিআরএস। শুধু লেগ বিফোরের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হবে এ পদ্ধতি। ডিআরএসের আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ পদ্ধতি ব্যবহৃত হতো।

মিরপুরে দুই দলের সর্বশেষ লড়াইয়ে মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন ক্যারিবীয় ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার। চট্টগ্রামের পেসার রেজাউর রহমান রাজার বাউন্সারে হুক খেলতে গিয়ে বলে থুঁতনিতে আঘাত পান। এরপর স্ট্রেচারে করে মাঠ ছেড়েছিলেন ফেøচার। হাসপাতালে নিয়ে গেলেও অবস্থা সিরিয়াস ছিল না। গতকাল চট্টগ্রাম পর্বে খেলতে নেমেই বাজিমাত করেন ক্যারিবীয় ওপেনার। ৪৭ বলে ৫৮ রানের ইনিংসটি খেলে ম্যাচসেরা হন। তার আক্রমণাত্মক ইনিংসে ৬টি চার ছাড়াও ছিল ২টি ছক্কা। চট্টগ্রামের ছুড়ে দেওয়া ১৪৪ রানের টার্গেটে খুলনার বাঁ-হাতি ওপেনার সৌম্য সরকার ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন। এরপর ফ্লেচার দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে রনি তালুকদারকে নিয়ে যোগ করেন ৫১ রান। রনি আউট হন ব্যক্তিগত ১৭ রানে নাসুমের বলে। তৃতীয় উইকেটে ফ্লেচার-মুশফিক জুটি ৩৯ বলে ৪৬ রান যোগ করে খুলনার জয়ের ভীত তৈরি করেন। দলীয় ৯৮ রানে মেহেদি মিরাজের শিকারে পরিণত হন ফ্লেচার। দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান খুলনার অধিনায়ক মুশফিক ৪৪ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে। ৩০ বলের ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও একটি ছক্কা। লঙ্কান ক্রিকেটার প্রসন্ন সেক্কুগে ১৫ বলে ২৩ রান করেন। এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে চট্টগ্রামের সংগ্রহ ছিল ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪৩ রান। চট্টগ্রামের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন আফিফ হোসেন ধ্রুব ৩৭ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায়। ইংলিশ ওপেনার উইল জ্যাকস ২৮ রান করেন ২৩ বলে ৪ চারে।

শেষ দিকে নাইম ইসলাম ২৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন ১৯ বলে ২ চার ও এক ছক্কায়। লঙ্কান পেসার থিসারা ৪ ওভারের স্পেলে ১৮ রানের খরচে নেন ৩ উইকেট।

সর্বশেষ খবর