৪ জানুয়ারি, ২০২৪ ০৮:৪৩

মিরপুরের ‘ডিমেরিট পয়েন্ট’ নিয়ে হতাশ বিসিবি

অনলাইন ডেস্ক

মিরপুরের ‘ডিমেরিট পয়েন্ট’ নিয়ে হতাশ বিসিবি

মিরপুরের উইকেট নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার শেষ নেই। কয়েকদিন আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনে উইকেট পড়ে ১৫টি। ম্যাচ শেষ হয় স্রেফ ১৭৮ ওভার এক বলে। যদিও বৃষ্টির কারণে খেলা চতুর্থ দিন অবধি যায়। উইকেটে প্রথম দিন থেকেই সাহায্য পান স্পিনাররা, বলও টার্ন করে বেশ।

এমন উইকেট নিয়ে আইসিসির কাছে নেতিবাচক প্রতিবেদন দেন ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুন। পরে এর প্রেক্ষিতে পাঁচ বছরের জন্য মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের পিচকে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়। এই সময়ে ছয়টি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে এক বছর আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করা যাবে না এই ভেন্যুতে।  

আইসিসির দেওয়া ওই ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে বুধবার সাংবাদিকদের হতাশার কথা জানিয়েছেন বিসিবির গ্রাউন্ডস কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুব আনাম। ম্যাচের সময় ও আগে বৃষ্টি থাকার কারণে পিচ ঠিকঠাক প্রস্তুত করা যায়নি বলে দাবি করেন তিনি।

আইসিসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে কি না জানতে চাইলে মাহবুব আনাম বলেন, ‘এটা (ডিমেরিটের বিরুদ্ধে আপিল) এরই মধ্যে প্রক্রিয়াধীন। বোর্ডের প্রধান নির্বাহী এ বিষয়টি নিয়ে আইসিসির সঙ্গে কাজ করছে। তো এটি এখন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।’

‘আমি আগেও বলেছি, এই ডিমেরিট পয়েন্ট খুবই হতাশাজনক। আবহাওয়া আমাদেরকে (ভালো উইকেট) করতে দেয়নি। খেলাটা শুরু হওয়ার আগে... দশ দিন আগেও বৃষ্টি ছিল, দুই দিন আগে থেকেও বৃষ্টি। খেলা চলাকালেও আমরা কোনো সূর্যের আলো পাইনি। যে কারণে উইকেট প্রস্তুতি বিঘ্নিত হয়েছে। সেজন্যই আমি হতাশ যে আমাদের এই পরিস্থিতি বিবেচনা করা হয়নি।’

ডিমেরিট পয়েন্ট উঠে যাবে বলে আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আগেও এমন হয়েছে যে, ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়ার পর যখন প্রমাণ হয়েছে যে অন্যান্য পরিস্থিতির কারণে উইকেট প্রস্তুতি বিঘ্নিত হয়েছে, তখন ডিমেরিট পয়েন্ট তুলে নেওয়া হয়েছে।’

 

বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর