শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ মে, ২০১৯ ১৭:৫৭

চাঁদা না দেয়ায় জবি শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ কবি নজরুল ছাত্রলীগের

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি


চাঁদা না দেয়ায় জবি শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ কবি নজরুল ছাত্রলীগের

বাবা জীবিত নেই। মা ও বোনের খরচ চালাতে হয় মাহমুদকে। অর্থের অভাবে পড়াশুনার পাশাপাশি পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে সবজি বিক্রি করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের(জবি) ইংরেজি বিভাগের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহমুদ। দরিদ্রতার কারণে বিশ্ববিদ্যালয় তার পড়ার খরচ মওকুফ করে দিয়েছে। লক্ষ্মীবাজারে তার ভ্যানের দোকান থেকে কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নিয়মিত চাঁদা চেয়ে না পেয়ে আলু, পিঁয়াজ, মরিচ নিয়ে যেতেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে মাহমুদ এর প্রতিবাদ করায় তাকে কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ১২তম ব্যাচের ইংরেজি বিভাগের মেধাবী ছাত্র মাহমুদ নিজের পড়াশুনা ও পরিবারের ভরণপোষনের টাকা জোগাড় করার জন্য সন্ধ্যার পর পুরান ঢাকা লক্ষ্মীবাজারে সবজি বিক্রি করতেন। বৃহস্পতিবার চাঁদা নিতে আসলে ওই শিক্ষার্থী এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের সহ সভাপতি এসডি আকাশ ও সহ সম্পাদক ইয়াসিন আল আকাশ এবং ছাত্রলীগ কর্মী মোল্লা আলামিনের নেতৃত্বে কবি নজরুলের ভেতরে নিয়ে কয়েকজন তাকে মারধর করেন বলে অভিযো পাওয়া গেছে।

আহত শিক্ষার্থী মাহমুদ জানান, আমার পড়াশোনার টাকা দেওয়ার সামর্থ্য নেই পরিবারের। তাই সন্ধ্যার পর লক্ষীবাজারে সবজি বিক্রি করি। কিন্তু কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমার কাছে চাঁদা দাবি করেন। চাঁদার টাকা না দেওয়ায় আমার দোকান থেকে তারা প্রতিদিন পিয়াঁজ, মরিচ নিয়ে যেতেন। আজ (বৃহস্পতিবার) প্রতিবাদ করায় তারা তাকে মারধর করেছে।

এ বিষয়ে কবি নজরুল কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাওলাদার বলেন, সংগঠনের কেউ যদিও এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকে তাদের কঠিন শাস্তির আওতায় আনা হবে।

বিডি-প্রতিদিন/২৪ মে, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য